উত্তরপ্রদেশে লাগাতার বৃষ্টিতে নির্মীয়মান বাড়ি ভেঙে ভয়ংকর দুর্ঘটনা, চাপা পড়ল ৭ শিশু

04:43 PM Jul 30, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লাগাতার বৃষ্টি চলছে উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) আলিগড়ে। তার জেরে ঘটে গেল মর্মান্তিক ঘটনা। ভেঙে পড়ল একটি নির্মীয়মান বাড়ি। যার নীচে চাপা পড়ল ৭ শিশু। স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, তাদের মধ্যে ২ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আহত শিশুদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। এই ঘটনায় টুইট করে শোকপ্রকাশ করেছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা আম আদমি পার্টির (AAP) রাজ্য সভার সদস্য হরভজন সিং (Harbhajan Singh)। নিহত ও আহত শিশুদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

আলিগড় (Aligarh) জেলার হুসেনপুর শাহজাদপুর গ্রামে বেশকিছু দিন ধরে স্থানীয় বাসিন্দা এক ব্যক্তির ওই বাড়িটির নির্মাণকাজ চলছিল। পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার দিন ওই শিশুরা দুপুর তিনটে নাগাদ স্কুল ছুটির পর বাড়ি ফিরছিল। সেই সময় মুষলধারায় বৃষ্টি হচ্ছিল। যখন রাস্তার পাশের ওই নির্মীয়মান বাড়ির সামনে দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল শিশুরা, তখনই আচমকা হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ে বাড়িটি।

[আরও পড়ুন: ম্যাগি খেয়ে মৃত্যু হল তরুণীর, কারণ জানলে শিউরে উঠবেন]

বাড়ি ভাঙার শব্দে ছুটে আসেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তারাই প্রাথমিক ভাবে উদ্ধার কাজ শুরু করেন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ও দমকল বিভাগ ঘটনাস্থলে হাজির হয়। গুরুতর আহত শিশুদের উদ্ধার করা গেলেও তাদের মধ্যে ২ জনের মৃত্যু হয়। আহত বাকি ৫ শিশুকে স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। বর্তমানে সেখানে তাদের চিকিৎসা চলছে।

দাদো থানার পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, আহত ও মৃত শিশুদের বয়স ১০ থেকে ১২ বছরের মধ্যে। মৃত দুই শিশুর নাম রাম পাল সিং ও তালোয়ার সিং। উভয়েই ওই গ্রামের বাসিন্দা। স্থানীয় প্রশাসনের আধিকারিকরা আস্বস্ত করেছেন, মৃত ও আহত শিশুদের পরিবারগুলি যাতে সরকারি অর্থিক সাহায্য পায়, সেই বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: সংসদে বিজেপিকে কোণঠাসা করতে মহিলা সংরক্ষণ বিলই অস্ত্র, রণকৌশল তৈরি তৃণমূলের]

এদিকে আলিগড়ে দুই শিশুর মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করে টুইট করেছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা আপের রাজ্যসভার সদস্য হরভজন সিং। লেখেন, “আলিগড়ে নির্মীয়মান ভবন ভেঙে দুই শিশুর মৃত্যুর ঘটনা হৃদয়বিদারক। উত্তরপ্রদেশের খবর কষ্টকর। সমবেদনা জানাই পরিবারগুলিকে।”

Advertisement
Next