Advertisement

‘বাংলার বাঘিনী ১, দিল্লির কাগুজে বাঘ ০’, আলাপন ইস্যুতে মমতার পাশে সব বিরোধীরা

02:35 PM Jun 01, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Alapan Banerjee) বদলি ইস্যুতে নবান্ন (Nabanna) এবং দিল্লির যে দড়ি টানাটানি খেলা চলছিল, তাতে বাংলার বাঘিনী দিল্লির কাগুজে বাঘেদের থেকে ১-০ গোলে এগিয়ে গিয়েছেন। এমনটাই মনে করছেন শিব সেনা সাংসদ প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী (Priyanka Chaturvedi)। শুধু শিব সেনা কেন, এই গোটা ইস্যুতে কংগ্রেস থেকে শুরু করে সমাজবাদী পার্টি, আম আদমি পার্টি, সকলেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশেই দাঁড়িয়েছে। আলাপন ইস্যুতে দ্বিধাহীন ভাষায় তৃণমূলের পাশে দাঁড়িয়েছে কংগ্রেসও।

Advertisement

বাংলার ভোটে বিপর্যয়ের পর রাজ্যের সদ্যপ্রাক্তন মুখ্যসচিবের বদলির নির্দেশকে দিল্লির তরফে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর উপর আঘাত বলেই মনে করছে দেশের বিরোধী শিবির। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আপ (AAP) নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) বলছেন,”এটি রাজ্য সরকারের সঙ্গে লড়াই করার সময় নয়। বরং, এসময় সবাইকে সঙ্গে নিয়ে একযোগে করোনা মোকাবিলার করা উচিত কেন্দ্রের।” সমাজবাদী পার্টি (Samajwadi Party) ভোটের আগে থেকেই তৃণমূলের পাশে। আলাপন ইস্যুতেও ব্যতিক্রম হয়নি। এআইসিসির (AICC) তরফে আগেই বিবৃতি দিয়ে এই ইস্যুতে তৃণমূলের পাশে থাকার বার্তা দেওয়া হয়েছিল। এদিন নতুন করে অধীর চৌধুরীকে (Adhir Chowdhury) শোনা গিয়েছে আমলা আলাপনের (Alapan Banerjee) প্রশংসা করতে। আবার কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়ের একটি টুইটকে রিটুইট করে লিখেছেন “সুখেন্দুবাবুর প্রতি সহমর্মিতা রইল।” তৃণমূল সূত্রের খবর, গত দুদিনে উদ্ধব ঠাকরে, অখিলেশ যাদব, অরবিন্দ কেজরিওয়ালদের মতো নেতাদের সঙ্গে কথা হয়েছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বের। কথা হয়েছে কংগ্রেস শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও।

[আরও পড়ুন: আশঙ্কাই সত্যি, প্রায় চার দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ সংকোচন জিডিপিতে]

প্রসঙ্গত, বাংলার নির্বাচনে তৃণমূলের (TMC) বিরাট জয়ের পরই জাতীয় রাজনীতির সমীকরণ বদলাতে শুরু করেছে। আরও একবার বিরোধী দলগুলি একজোট হয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করা নিয়ে জল্পনা শুরু করেছে। আর এবারে বিরোধী জোটের মধ্যমণি হিসেবে ভাবা হচ্ছে মমতাকে (Mamata Banerjee)। এর মধ্যে আলাপন ইস্যুকে সামনে রেখে সব বিরোধী দল যেভাবে মমতার পাশে দাঁড়াচ্ছে,তা আলাদা তাৎপর্য রাখে। কাকতালীয়ভাবে এবার মমতাকে সমর্থন করছে কংগ্রেসও।

Advertisement
Next