রেললাইন উড়িয়ে ভারতে নাশকতার ছক পাকিস্তানের! সতর্কতা জারি করল গোয়েন্দা দপ্তর

01:28 PM May 23, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতে বড়সড় হামলার ছক কষছে পাকিস্তান (Pakistan)। বিস্ফোরণ ঘটিয়ে একাধিক রেল লাইন ওড়ানোর পরিকল্পনা করছে পাক গুপ্তচর সংস্থা এএসআই (ASI)। রেল লাইন ওড়ানো হলে অসংখ্য মানুষের প্রাণ সংশয় হতে পারে। ভারতীয় গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, এই কাজে পাকিস্তানকে সাহায্য করছে ভারতে থাকা জঙ্গিরা। পাঞ্জাব এবং তৎসংলগ্ন অন্যান্য রাজ্যগুলিতে এই ধরনের নাশকতার চেষ্টা করছে পাকিস্তান। এই ঘটনার কথা জানিয়ে ইতিমধ্যে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। 

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

ভারতীয় গোয়েন্দারা মনে করছেন, ভারতে (India) নাশকতা চালানোর জন্য খুব ভাল ভাবে প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। পাক জঙ্গি সংগঠনগুলির (Pakistan Terrorist) স্লিপার সেল যথেষ্ট সক্রিয় রয়েছে ভারতে। মূলত তারাই এই হামলার পরিকল্পনা করছে। একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, মূলত পণ্যবাহী ট্রেনগুলিতে হামলা হতে পারে। ভারতীয় গোয়েন্দাদের মতে, বিস্ফোরণ ঘটিয়ে রেল লাইন উড়িয়ে দেওয়া হতে পারে। আরও জানা গিয়েছে, যে সময়ে রেল লাইনে ট্রেন চলছে তখনই বিস্ফোরণ ঘটানো হবে।

[আরও পড়ুন: বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর উত্তরপ্রদেশে বন্ধ হয়েছে রাস্তা আটকে নমাজপাঠ, হুঙ্কার যোগীর

এই কাজের জন্য পাকিস্তান বিশাল অঙ্কের টাকা খরচ করছে বলেও জানা গিয়েছে। পাক জঙ্গিদের স্লিপার সেলগুলিকে মোটা অঙ্কের টাকা দেওয়া হয়েছে। উদ্দেশ্য একটাই, সঠিক ভাবে এই পরিকল্পনা যেন সফল করা যায়। 

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

পাঞ্জাব (Punjab) এবং আশপাশের রাজ্যগুলিকে সতর্ক থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন ভারতীয় গোয়েন্দারা। সন্দেহভাজনদের দিকে কড়া নজর রাখতে বলা হয়েছে। বিশেষত রেল লাইন যেসব অঞ্চলে রয়েছে, সেখানে কড়া নিরাপত্তা রাখতে বলা হয়েছে স্থানীয় প্রশাসনকে। সাম্প্রতিক অতীতে পাঞ্জাব এবং লুধিয়ানাতে আরডিএক্স বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। জানা গিয়েছে, পাকিস্তান-পাঞ্জাব সীমান্তে আইইডি ফেলেছে পাক জঙ্গিরা। বেশ কয়েকটি আইইডি উদ্ধার করা হয়েছে। কিন্তু অধিকাংশ বিস্ফোরক এখন সন্ত্রাসবাদীদের হাতেই রয়েছে বলে অনুমান করছেন ভারতীয় গোয়েন্দারা। এই বিস্ফোরক ব্যবহার করে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ানোর চেষ্টা করা হবে বলেই অনুমান করছে প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: মহেশতলায় গেঞ্জি কারখানায় ভয়াবহ আগুন, ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা

Advertisement
Next