Advertisement

মুম্বইয়ে সেঞ্চুরির কাছাকাছি পেট্রল, জ্বালানির দামে নয়া রেকর্ড কলকাতায়

08:49 AM May 18, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একদিকে করোনায় (Coronavirus) মৃত্যুমিছিল। অন্যদিকে কাজ হারিয়ে পেটের টান। দেশের আমজনতা জখন অর্থনৈতিকভাবে খাদের কিনারে, তখনই জ্বালানির দাম বাড়ছে হু হু করে। রোজ রোজ তৈরি হচ্ছে নয়া রেকর্ড। যার প্রভাব সরাসরি পড়ছে খোলা বাজারে। অথচ, হেলদোল নেই সরকারের।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

মুম্বইয়ের মতো মহানগরে পেট্রলের দাম প্রায় সেঞ্চুরির দোরগোড়ায়। কলকাতা-সহ দেশের অন্য বড় শহরগুলিতেও রেকর্ড গড়ছে জ্বালানি। এসবের মধ্যেও মঙ্গলবার দাম বাড়িয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থাগুলি। মুম্বইয়ে মঙ্গলবার পেট্রলের (Petrol) দাম বেড়েছে লিটারপ্রতি ২৭ পয়সা করে। ডিজেলের (Diesel) দাম বেড়েছে লিটারপ্রতি ২৯ পয়সা। ফলে প্রথমবার সেখানে পেট্রল ৯৯টাকার গণ্ডি পেরিয়েছে। কলকাতাতে মঙ্গলবার পেট্রলের দাম বেড়েছে লিটারপ্রতি ২৫ পয়সা। ডিজেলের দাম বেড়েছে লিটারপ্রতি ২৯ পয়সা। মঙ্গলবার মুম্বইয়ে পেট্রল বিকোচ্ছে ৯৯ টাকা ১৪ পয়সা প্রতি লিটার দরে। ডিজেল বিকোচ্ছে ৯০ টাকা ৭১ পয়সা দরে। দিল্লিতে পেট্রলের নতুন দাম হয়েছে ৯২টাকা ৮৫ পয়সা। ডিজেল বিকোচ্ছে লিটারপ্রতি ৮৩ টাকা ৫১ পয়সা দরে। চেন্নাইয়ে পেট্রল ও ডিজেলের নতুন দাম যথাক্রমে ৯৪ টাকা ৫৪ পয়সা এবং ৮৮টাকা ৩৪ পয়সা। শহর কলকাতায় (Kolkata) নয়া রেকর্ড গড়ে পেট্রলের দাম ৯২ টাকা ৯২ পয়সা। ডিজেলের দাম ৮৬ টাকা ৩৫ পয়সা।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: কেন করোনার ওষুধ মজুত করেছেন? আদালতের তীব্র ভর্ৎসনার মুখে গম্ভীর]

বিশ্বজুড়ে করোনার দাপটে একধাক্কায় অনেকটা কমেছে জ্বালানি তেলের চাহিদা। যার জেরে অপরিশোধিত তেলের দামও নিম্নমুখী। গত বছরও করোনার কোপ আর লকডাউনের জেরে পেট্রল-ডিজেলের আমদানি কমিয়ে ফেলেছিল ভারত। এবছরও নতুন করে মারণ ভাইরাসের চোখ রাঙানির কারণে ফের একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। পূর্ণ ও আংশিক লকডাউনের পথে হেঁটেছে একাধিক শহর। ফলে চাহিদা কমছে পেট্রল-ডিজেলের। কিন্তু তা সত্ত্বেও ভোট শেষ হতেই দেশে লাগাতার পেট্রল-ডিজেলের দাম বাড়ায় ফের সমালোচনায় বিদ্ধ কেন্দ্র সরকার। আসলে, বিভিন্ন এলাকায় লকডাউনে উৎপাদন কমেছে। ফলে কমেছে সরকারি রাজস্ব। আর কেন্দ্র চাইছে জ্বালানি থেকেই সেই রাজস্ব ঘাটতি পূরণ করতে। কিন্তু এর ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বিপুল হারে বাড়তে শুরু করেছে। সেটাই চিন্তা বাড়াচ্ছে আম আদমির।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next