দেশের অগ্রগতির জন্য ‘পঞ্চসংকল্প’মোদির, লালকেল্লা থেকে ঘোষণা

12:47 PM Aug 15, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের অগ্রগতির ক্ষেত্রে আগামী ২৫ বছর ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। ২০৪৭ সালের মধ্যে শহিদদের স্বপ্নপূরণ করতে হবে। আর এই স্বপ্নপূরণের জন্য ‘পঞ্চসংকল্প’ নেওয়ার পরামর্শ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। (PM Narendra Modi)। স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে লালকেল্লা থেকে সেই ৫ সংকল্পের কথা উল্লেখ করলেন তিনি। কী এই ৫ সংকল্প?

Advertisement

এই পাঁচ সংকল্প হল- এক, বিকশিত ভারত। দুই, দাসত্ব থেকে মুক্তি। তিন. উত্তরাধিকার নিয়ে গর্ব। চতুর্থ, ঐক্য। পঞ্চম, নাগরিক কর্তব্য। আগামী ২৫ বছর এই পাঁচ ক্ষেত্রে জোর দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

 

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ‘দেশের ক্ষতি করছে ভাই-ভাতিজাতন্ত্র, ফেরত দিতে হবে লুঠের টাকা’, কড়া বার্তা প্রধানমন্ত্রীর]

বিকশিত ভারত: দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সবক্ষেত্রে অগ্রগতি দরকার। স্বাধীনতার শতবর্ষপূর্তির আগেই আড়াই কোটি মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ পৌঁছে দিতে হবে। জোর দিতে হবে টিকাকরণ, স্বচ্ছতার উপরেও। এদিন জানিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী। আর এই সমস্ত কাজে এগিয়ে আসতে হবে যুব সমাজকে। তাদের উপরই দেশের আগামী ২৫ বছর নির্ভর করে রয়েছে বলে জানালেন মোদি। 

দাসত্ব থেকে মুক্তি: ২০০ বছর ধরে দেশের মানুষ ব্রিটিশদের গোলামি করেছে। পরাধীন থেকেছে। কিন্তু মনে সেই পরাধীনতার সামান্য রেশও রাখা যাবে না বলে পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, নয়া জাতীয় শিক্ষানীতি পরাধীন মানসিকতা থেকে মুক্তি দেবে। দেশের প্রতিটি ভাষা নিয়ে গর্ব করতে হবে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। 

উত্তরাধিকার নিয়ে গর্ব: আমাদের ঐতিহ্য নিয়ে গর্ব করতে হবে। তবেই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব বলছেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, আমাদের মাটির সঙ্গে সম্পর্ক তবে আকাশ ছোঁয়া সম্ভব। 

[আরও পড়ুন: গান্ধীর সঙ্গে একাসনে সাভারকর, লালকেল্লা থেকে ‘হিন্দুবীর’-কে সম্মান প্রধানমন্ত্রীর]

একতা: বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্য ভারতেরই আসল শক্তি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, “অনেকেই মনে করেন, ভারতে এত জাতি-ধর্ম-বর্ণ রয়েছে, সেটাই হয়তো ভারতের অগ্রগতির পথে মূল বাধা। কিন্তু এটাই যে ভারতের সবচেয়ে বড় শক্তি তা বিশ্বকে বুঝিয়ে দিতে হবে।”

নাগরিক কর্তব্য পালন: দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে দায়িত্ব নিতে হবে দেশবাসীকে। পালন করতে হবে কর্তব্য। প্রধানমন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী এই কর্তব্যের বাইরে নয় বলে জানান মোদি।

Advertisement
Next