Advertisement

জন্মদিনে টুইটারে যোগী আদিত্যনাথকে শুভেচ্ছাই জানালেন না মোদি!

09:12 AM Jun 06, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Modi) টুইটার হ্যান্ডেল বেশ অবাকই করেছে অনেককে। সারা দিনে মাইক্রো ব্লগিং সাইটে একটিও শব্দ তিনি খরচ করেননি যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) জন্য। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর জন্মদিনে টুইটারে শুভেচ্ছা বার্তাই পাঠালেন না মোদি! এমনকী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও যোগীর জন্মদিনে তাঁকে নিয়ে কোনও টুইট করেননি। যা দেখে ভ্রু কুঁচকেছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

Advertisement

গত বছর ৫ জুন যোগীর প্রশংসায় মোদি টুইটারে লিখেছিলেন, “উত্তরপ্রদেশের প্রগতিশীল ও কর্মঠ মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে জন্মদিনের অনেক শুভেচ্ছা। তাঁর নেতৃত্বে রাজ্য উন্নতির নয়া শিখরে পৌঁছে যাচ্ছে।” অথচ এ বছর কোনও টুইট নেই। যোগীর মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের প্রাক্তন আমলা অরবিন্দকুমার শর্মাকে জায়গা করে দিতে চাওয়া নিয়ে মোদি শিবিরের সঙ্গে যোগী শিবিরের ঠান্ডা লড়াইয় শুরু হয়েছে বলে জল্পনা চলছিল। আর যোগীর জন্মদিনে টুইটারে মোদি কোনও শুভেচ্ছা না জানানোয় সেই আগুনেই আরও খানিকটা ঘি পড়ল বলে মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: পিছু হটল টুইটার, কয়েক ঘণ্টা পরই মোহন ভাগবতের হ্যান্ডেলে ফিরল ব্লু টিক]

যদিও যোগী সরকারের একাংশ জানাচ্ছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু না লিখলেও আদিত্যনাথের সঙ্গে শনিবার ফোনে কথা হয়েছে মোদির। ফোনের ওপার থেকেই জানিয়েছেন জন্মদিনের শুভেচ্ছা। আবার এও মনে করা হচ্ছে, নয়া তথ্য-প্রযুক্তি নীতি নিয়ে টুইটারের সঙ্গে কেন্দ্রের যে মতানৈক্য চলছে, সেই কারণেই হয়তো সেখানে কোনও বার্তা দিতে চাননি প্রধানমন্ত্রী। যদিও পরিবেশ দিবস নিয়ে টুইট করেছেন মোদি। কিন্তু তথ্য বলছে, গত দু’মাসের মধ্যে মন্ত্রী নিতীন গডকড়ী কিংবা হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টরেরও জন্মদিন ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী কাউও উদ্দেশেই টুইট করেননি।

আসলে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বারবারই কাঠগড়ায় তোলা হচ্ছে মোদি সরকারকে। সমালোচনায় বিদ্ধ যোগীও। সেই কারণেই হয়তো সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যক্তিগত আলাপচারিতা এড়িয়েই চলছেন মোদি। তাই যোগীকে জন্মদিনে শুভেচ্ছা না জানানো নিয়ে অযথাই জলঘোলা করা হচ্ছে বলে দাবি বিজেপির একাংশের।

[আরও পড়ুন: নজরে ২৪-এর লোকসভা, মমতার সঙ্গে দেখা করতে রাজ্যে আসছেন কৃষক নেতা রাকেশ টিকাইত]

Advertisement
Next