Advertisement

পরিচয় লুকিয়ে ধর্ষণ, ধর্ম বদলে বিয়ের জন্য চাপ দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার যুবক

02:41 PM Jan 22, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধর্ম পরিচয় লুকিয়ে প্রেমের নাটক। তারপর বারবার ধর্ষণ। অবশেষে ধরা পড়ে গিয়ে জোর করে ধর্মান্তরিত করে বিয়ের হুমকি। এমনই একাধিক চাঞ্চল্যকর অভিযোগে মধ্যপ্রদেশে গ্রেপ্তার হল এক বছর পঁচিশের যুবক। উত্তরপ্রদেশের পরে মধ্যপ্রদেশেও (Madhya Pradesh) পাশ হয়ে গিয়েছে ‘লাভ জেহাদ’ (Love Jihad) বিরোধী আইন। সেই আইনে এটি দ্বিতীয় গ্রেপ্তারির ঘটনা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ঘটনা ঠিক কী? ২০১৯ সালে ওই যুবতীর সঙ্গে বাসে আলাপ অভিযুক্ত ভোপালের বাসিন্দা আসাদের। সেই সময় নিজের নাম ও ধর্মপরিচয় লুকিয়ে সে নিজের পরিচয় দেয় ‘আশু’ বলে। পাশাপাশি পেশায় একজন মেকানিক হওয়া সত্ত্বেও মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার বলে নিজের পেশার কথা জানায় তরুণীকে। দু’জনের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে ডিসেম্বরে নিজের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে যুবতীকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত। মার্চে তার জন্মদিনের সময় সে ফের ওই যুবতীকে নিয়ে যায় এক হোটেলে। সেই সময় তাঁকে মসজিদে প্রার্থনা করে ফেজ টুপি পরে ফিরে আসতে দেখেন ওই যুবতী। তাঁর কাছে পরিষ্কার হয়ে যায়, আত্মপরিচয় লুকিয়েছে অভিযুক্ত। সঙ্গে সঙ্গে তার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেন তিনি। ততদিনে লকডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: ‘আমি তেজস্বী যাদব বলছি’, ফোনে লালু-পুত্রের পরিচয় পেতেই ভোলবদল জেলাশাসকের ]

এরপর ফের অক্টোবর থেকে যুবতীর পিছু নেওয়া শুরু করে আসাদ। যুবতীর অভিযোগ, সেই সময় তাঁকে রাস্তার মধ্যে মারধরও করে সে। গত ১১ জানুয়ারি আবারও যুবতীর পিছু নিয়ে তাকে ধর্ম বদল করে বিয়ের জন্য জোর দিতে থাকে অভিযুক্ত যুবক। রাজি না হলে খুনেরও হুমকি দেয়। এখানেই শেষ নয়, চাপ আরও বাড়াতে সোশ্যাল মিডিয়ায় যুবতীর সঙ্গে নিজের ছবিও পোস্ট করে সে।
এরপরই নির্যাতিতা যুবতী সিদ্ধান্ত নেন, পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার। তাঁর অভিযোগর ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ওই যুবককে। তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির সাতটি ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ভারতের অর্থনৈতিক উন্নতি দেখে চমকে গিয়েছে বিশ্ব, দাবি অমিত শাহের]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next