Advertisement

‘অ-হিন্দুদের প্রবেশ নিষেধ’! বারাণসীর ঘাটে ফতোয়া জারি বজরং দল ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের

03:10 PM Jan 07, 2022 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অ-হিন্দুদের প্রবেশ নিষিদ্ধ। এই মর্মে নয়া পোস্টার বারাণসীর (Varanasi) বিভিন্ন ঘাটে। ঘাট সংলগ্ন দেওয়ালে বা অন্যত্র এমন‌ই পোস্টার টাঙাল কট্টর হিন্দুত্ববাদী দল বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (Vishwa Hindu Parishad) ও বজরং দল (Bajrang Dal)। ইতিমধ্যেই বিতর্ক ঘনিয়েছে এমন পোস্টার ঘিরে।

Advertisement

কিন্তু হঠাৎ কেন এমন পোস্টার? এপ্রসঙ্গে বজরং দলের বারাণসী শাখার প্রধান নিখিল ত্রিপাঠী রুদ্রর সাফ কথা, এই ঘাটগুলিকে অনেকেই পিকনিক স্পট বলে মনে করেন। তাঁদের কড়া বার্তা দিতেই এমন পোস্টার। তাঁর কথায়, ‘‘যাঁরা গঙ্গার ঘাটগুলিকে পিকনিক স্পট বলে মনে করেন, তাঁদের দূরে রাখার জন্যই এই পোস্টার। তাঁদের এটা বোঝানো দরকার যে এটা পিকনিক স্পট নয়, সনাতন সংস্কৃতির প্রতীক।’’

[আরও পড়ুন: লাদাখ সীমান্তে সেনা পাঠাতে প্যাংগং লেকে সেতু বানিয়ে ফেলেছে চিন, স্বীকার করল কেন্দ্র]

এই পোস্টার ঘিরেই ঘনিয়েছে বিতর্ক

একই সুর বিশ্ব হিন্দু পরিষদের বারাণসী সচিব রজন গুপ্তর গলাতেও। তাঁর কথায়, ‘‘যাঁরা সনাতন ধর্মকে শ্রদ্ধা দেখাতে এখানে আসবেন, তাঁদের স্বাগত।’’ তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন, যাঁদের মনে সনাতন ধর্মের প্রতি কোনও আস্থা নেই, তাঁদের মন্দির ও গঙ্গাঘাটে আসার কোনও অধিকারই নেই। পোস্টারগুলিতে পরিষ্কার ফতোয়ার সুর, ‘এটা কোনও অনুরোধ নয়, বরং হুমকি।’

Advertising
Advertising

স্বাভাবিক ভাবেই, যোগীরাজ্যের গঙ্গাঘাটে এমন পোস্টার ঘিরে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এমনিতেই বারাণসীর এই সব ঘাটে সারা বছর ধরেই বিপুল পরিমাণে পুণ্যার্থীদের আন‌াগোনা। তাঁদের মধ্যে একটা বড় অংশই বিদেশি পর্যটক। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে তাঁরা ঘাটে থাকেন। কথাবার্তা বলেন এলাকার বাসিন্দাদের সঙ্গেও। এই বিদেশি ও ভিন রাজ্যের মানুষদের আনাগোন‌াতেই গঙ্গার ঘাটে এমন সমাগমকে একটা রঙিন চরিত্র দিয়েছে। কিন্তু কট্টর হিন্দুত্ববাদীরা এবার সরব হয়েছেন সেই চরিত্রকে বদলে ফেলতে। এর আগেও ঘাটে বসে ধূমপানের বিরোধিতা করতে দেখা গিয়েছে তাদের। এবার সরাসরি পোস্টার লাগিয়ে বিরোধিতা করে হুমকি দেওয়া হল। এর আগে বছরের শুরুতে এলাকার চাঁদমারি অঞ্চলে এক চার্চের সামনে হনুমান চল্লিশা পাঠ করতে দেখা গিয়েছি‌ল হিন্দুত্ববাদীদের।

[আরও পড়ুন: TMC in Tripura: ত্রিপুরায় নিহত তৃণমূল নেতাকে শেষশ্রদ্ধা ব্রাত্য-রাজীবদের, শামিল বিক্ষুব্ধ ২ বিজেপি নেতাও]

Advertisement
Next