থরে থরে সাজানো নোট! মধ্যপ্রদেশের সরকারি কর্মীর বাড়িতে হানা দিয়ে হতবাক তদন্তকারী দল

05:48 PM Aug 04, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একাধিক তদন্তকারী সংস্থার হানায় গরিব ভারত হঠাৎ যেন বড়লোক হয়ে উঠছে! নেতা-মন্ত্রী-আমলাদের প্রকাশ্য ও গোপন ঠিকানা থেকে কোটি কোটি টাকা, দামি ফ্ল্যাট, সোনা-হিরে-মণি-মুক্তো উদ্ধার হচ্ছে। এবার মধ্যপ্রদেশে (Madhya Pradesh) এক রাজ্য সরকারি কর্মীর বাড়ি থেকে ৮৫ লক্ষ টাকার সম্পত্তি উদ্ধার হল। এর মধ্যে ৮০ লক্ষ টাকা নগদ। বাকিটা সোনা ও রুপোর গয়না। বুধবার মধ্যপ্রদেশ সরকারের ইকোনমিক অফেন্সেস উইং (Economic Offences Wing)-এর আধিকারিকরা একটি তদন্ত অভিযানে এই নগদ উদ্ধার করেন। এদিকে বাড়িতে রেড চলাকালীন অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিযুক্ত সরকারি কর্মী। তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।    

Advertisement

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বিপুল পরিমাণ নগদ উদ্ধার হয়েছে হিরো কেশওয়ানির (Hero Keshwani) নামের রাজ্য সরকারি কর্মীর বাড়ি থেকে। হিরো রাজ্যের চিকিৎসা শিক্ষা বিভাগের করণিক। একটি বেআইনি সম্পত্তির মামলার তদন্ত করছিল ইওডব্লিউ (EOW)। সেই সূত্রেই ভোপালের বাইরাঘর এলাকায় হিরোর বাড়িতে হানা দেন ইওডব্লিউ-র তদন্তকারী প্রতিনিধি দল। তখনই মধ্যপ্রদেশ সরকারের বেতনভুক ওই করণিকের বাড়ি থেকে নগদ ৮০ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়।

[আরও পড়ুন: স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লায় একযোগে হামলা চালাতে পারে লস্কর এবং জইশ, সতর্কবার্তা আইবির]

হিরো কেশওয়ানি চার হাজার টাকা বেতনে রাজ্য সরকারি কর্মী হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। বর্তমানে প্রতি মাসে বেতন পান ৫০ হাজার টাকা। প্রশ্ন উঠছে এখানেই। ক্লার্কের পদে কাজ করা একজন রাজ্য সরকারি কর্মীর বাড়িতে কোথা থেকে এত টাকা এল! গোটা বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে মধ্যপ্রদেশ সরকারের ইকোনমিক অফেন্সেস উইং।

Advertising
Advertising

তবে হিরোকে জিজ্ঞাসাবাদ সম্ভব হচ্ছে না এখনই। যেহেতু নগদ উদ্ধারের সময়েই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। চিকিৎসার জন্য তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করানো হয়েছে। সুস্থ হলেই তদন্তকারী দলের জেরার মুখে পড়তে হবে ওই রাজ্য সরকারি ক্লার্ককে।

[আরও পড়ুন: দেশের করোনা পরিসংখ্যানে ফের উদ্বেগ, নতুন করে দৈনিক আক্রান্ত প্রায় ২০ হাজার]

জব্বলপুরে এসপি দেবেন্দ্র সিং রাজপুত বলেন, ভোর ৫টা নাগাদ অভিযুক্তের বাড়িতে অভিযান চালায় ইওডব্লিউ আধিকারিকরা। ৮০ লক্ষ টাকা নগদ, ৫ লক্ষ টাকার সোনা-রুপোর গয়না ছাড়াও ৩৯০০ বর্গফুটের একটি প্লট এবং একটি প্রাসাদোপম বাড়ির খোঁজ পেয়েছে তদন্তকারী দল। এছাড়াও মিলেছে দু’টি এসইউভি গাড়ি, একটি স্কুটার। অভিযুক্তের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে রয়েছে ৬ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা।

Advertisement
Next