Advertisement

ঊর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমণের গ্রাফ, এবার লকডাউনের পথে হাঁটল সিকিমও

12:05 PM May 15, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার (Corona Pandemic) দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিধ্বস্ত গোটা দেশ। প্রতিদিনই বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে এবার লকডাউনের পথে হাঁটল দেশের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত উত্তর-পূর্বের রাজ্য সিকিম (Sikkim)। ১৭ মে থেকে ২৪ মে পর্যন্ত সেখানে জারি থাকবে লকডাউন। রাজ্যের ঊর্ধ্বমুখী করোনা গ্রাফের কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

Advertisement

সিকিম সরকারের স্বরাষ্ট্রদপ্তরের তরফ থেকে জারি করা নির্দেশিকায় সাফ জানানো হয়েছে, ১৭ মে থেকে রাজ্যে জারি থাকবে লকডাউন। এই সময়ে বন্ধ থাকবে রেশন দোকান, ব্যক্তিগত সমস্ত বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, রাজ্য সরকারের অফিস, সরকারি সংস্থা, জিম, মার্কেট এবং সমস্ত কারখানা। দুধের দোকান খোলা থাকবে সকাল সাতটা থেকে ১১টা পর্যন্ত। এছাড়া ওষুধ, চিকিৎসার সরঞ্জাম, অক্সিজেন উৎপাদনকারী ইউনিটগুলি এবং করোনা চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত বাকি সমস্ত কিছু অবশ্য খোলা থাকবে।

এছাড়া শাক-সবজি, খাবার এবং নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের গাড়ি চলাচলেও কোনও নিষেধাজ্ঞা থাকছে না। জরুরি চিকিৎসার ক্ষেত্রে কমার্শিয়াল এবং প্রাইভেট গাড়িগুলিকে চলাচলের জন্য কর্তৃপক্ষের অনুমতি প্রয়োজন। তবে ভ্যাকসিনেশন কেন্দ্রগুলি খোলা থাকবে। প্রসঙ্গত, এর আগে আগামী ১৬ মে পর্যন্ত আংশিক লকডাউন ঘোষণা করেছিল সিকিম। কিন্তু রাজ্যে গত কয়েক সপ্তাহে পজিটিভিটি রেট ২০ শতাংশের বেশি হওয়ায় লকডাউনের পথেই হাঁটল সিকিম সরকার। পাশাপাশি লকডাউন ভাঙলে কড়া শাস্তির কথাও জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: মাত্র ১০ দিনেই করোনাকে হারাল ওড়িশার সদ্যোজাত, যুদ্ধজয়ের আনন্দে উচ্ছ্বসিত চিকিৎসকরা]

এদিকে, উত্তর-পূর্বের রাজ্যে যখন লকডাউন ঘোষণা হয়েছে, তখন দক্ষিণের রাজ্য কেরলে বাড়ল লকডাউনের মেয়াদ। প্রাথমিকভাবে ১৬ তারিখ পর্যন্ত লকডাউন জারি করা হয়েছিল এই রাজ্যে। কিন্তু এবার লকডাউনের সময়সীমা বাড়িয়ে ২৩ মে পর্যন্ত করা হয়েছে। শুক্রবার কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানান, ২৩ মে পর্যন্ত রাজ্যে জারি থাকবে লকডাউন। একইসঙ্গে কেরলের তিনটি জেলা ত্রিশূর, এর্নাকুলম এবং মালাপুরামে ট্রিপল লকডাউন জারি করা হবে।

অন্যদিকে, আবার দিল্লির রামলীলা ময়দানে করোনা আক্রান্তদের জন্য ৫০০টি বেডের আয়োজন করা হয়েছে। শনিবার থেকে চালুও হয়ে গিয়েছে সেটি।

[আরও পড়ুন: ১৫ দিনে বিনামূল্যে ১ কোটি ৯২ লক্ষ ভ্যাকসিন পাবে রাজ্যগুলি, বড় ঘোষণা কেন্দ্রের]

Advertisement
Next