‘খুনি, গণধর্ষণকারী’টিপু সুলতানের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ‘না’কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

12:27 PM Oct 21, 2017 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  কর্নাটকে কংগ্রেস জমানায় সরকারিভাবে টিপু সুলতানের জন্মজয়ন্তী পালন করা নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি। গত দু’বছরে দক্ষিণের এই রাজ্যে টিপু সুলতানের জন্মজয়ন্তী পালনের প্রতিবাদে বিক্ষোভও হয়েছে বিস্তর। তবে নিজেদের সিদ্ধান্তেই অনড় কর্নাটক সরকার। আর এবার কর্নাটকের টিপু সুলতানের জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে তাঁকে আমন্ত্রণ না করার অনুরোধ জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনন্ত কুমার হেগড়ে। মাইসুরুর রাজা টিপু সুলতানকে ধর্ষক ও খুনি বলে অভিহিত করেছেন তিনি।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[দুর্নীতিগ্রস্ত আধিকারিকদের আড়াল করতে ‘রক্ষাকবচ’ রাজস্থান সরকারে ]

২০১৫ সাল থেকে টিপু সুলতানের জন্মজয়ন্তী পালন করছে কর্নাটকের কংগ্রেস সরকার। কিন্তু, সরকারের এই সিদ্ধান্তে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে দক্ষিণের এই রাজ্যে। প্রথম বছরে টিপু সুলতানের জন্মজয়ন্তী পালনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে দু’জনের মৃত্যু হয়েছিল। গত বছরও মাইসুরুর রাজার জন্মজয়ন্তীতে কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে কর্নাটকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছিল। কুডাগো জেলার মাদিকেরি এলাকায় বিক্ষোভও হয়েছিল। আন্দোলনকারীদের দাবি, টিপু সুলতান একজন অত্যাচারী শাসক ছিলেন। বহু হিন্দুকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করতে বাধ্য করেছিলেন তিনি। তবে এইসব বিক্ষোভ বা প্রতিবাদে একেবারেই বিচলিত নয় কর্নাটক সরকার। এবারও যথারীতি আগামী ১০ নভেম্বর টিপু সুলতানের জন্মজয়ন্তী পালন করবে সিদ্দারামাইয়ার সরকার। কিন্তু, সেই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হতে চান না উত্তর কন্নড়ের পাঁচবারের সাংসদ ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনন্ত হেগড়ে। প্রসঙ্গত, সরকারি প্রোটোকল অনুসারে, জেলার যে কোনও সরকারি অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্রে সাংসদের নাম থাকে।

Advertising
Advertising

[এবার যোগীর রাজ্যেই গুলি করে খুন আরএসএস কর্মীকে]

টিপু সুলতানের জন্মজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে তাঁকে আমন্ত্রণ না জানানোর অনুরোধ জানিয়ে কর্নাটকের মুখ্যসচিব ও উত্তর কন্নড়ের ডেপুটি কমিশনারকে চিঠি দিয়েছেন অনন্তকুমার হেগড়ে। সেই চিঠির ছবি দিয়ে টুইটও করেছেন তিনি। টুইটে লিখেছেন,‘ নৃশংস খুনি, ধর্মান্ধ ও গণধর্ষণকারী হিসেবে লোকে যাকে চেনে, তাকে মহিমান্বিত করে তোলার লজ্জার আসরে তাঁকে যেন আমন্ত্রণ না করা হয়।’ রাজ্যের একজন সাংসদ ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এ হেন আচরণে তীব্র সমালোচনা করেছেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া। তাঁর বক্তব্য, একজন মন্ত্রী হয়ে এমন কথা লেখা উচিত হয়নি অনন্ত কুমার হেগড়ের। বিষয়টি নিয়ে অহেতুক রাজনীতি করছেন তিনি। টিপু সুলতানের জয়জয়ন্তীর অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্র কেন্দ্র ও রাজ্যের সব নেতা ও মন্ত্রীকেই পাঠানো হবে। আসা, না আসা তাঁদের ব্যাপার।

[দিওয়ালিতে রামচন্দ্রের আরতি, মৌলবাদিদের ফতোয়ার মুখে মুসলিম মহিলারা]

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের গোড়ায় কেন্দ্রীয় কর্মদক্ষতা উন্নয়ন মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েছেন অনন্ত কুমার হেগড়ে। অতীতে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক বক্তব্য পেশ ও নিজের লোকসভাকেন্দ্রের অন্তর্গত একটি হাসপাতালে চিকিৎসককে মারধরের ঘটনায় বিতর্কে জড়িয়েছিলেন উত্তর কন্নড়ের পাঁচবারের এই সাংসদ।

 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[তাজমহল নিয়ে কেরল পর্যটন দপ্তরের টুইটে মজেছে নেটিজেনরা]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

The post ‘খুনি, গণধর্ষণকারী’ টিপু সুলতানের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ‘না’ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next