বড় ভাইয়ের সঙ্গে ‘নিকাহ হালালা’য় নারাজ, প্রাক্তন স্ত্রীর মুখে অ্যাসিড ছুঁড়ল ব্যক্তি

09:12 AM Jun 30, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বড় ভাইয়ের সঙ্গে ‘নিকাহ হালালা’য় নারাজ। অভিযোগ, তাই প্রাক্তন স্ত্রীর মুখে অ্যাসিড ছুঁড়ল এক ব্যক্তি। এই নৃশংস ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বরেলি শহরে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে বুধবার জানিয়েছে পুলিশ।

Advertisement

পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত যুবকের নাম ইশাক। বয়স ৩৪। প্রায় মাসখানেক আগে স্ত্রী নাসরিনকে তিন তালাক দেয় সে। তারপর থেকেই বাপের বাড়ি থাকতেন বছর বত্রিশের ওই মহিলা। কিন্তু তালাক দিলেও বারবার প্রাক্তন স্ত্রীকে ফিরে আসার জন্য জোরজুলুম করছিল অভিযুক্ত। মঙ্গলবার আচমকা নাসরিনের বাড়িতে হাজির হয় ইশাক। ফের তাঁকে বিয়ে করার জন্য চাপ দিতে শুরু করে সে। শরিয়া আইন অনুযায়ী নাসরিনকে বড় ভাইয়ের সঙ্গে ‘নিকাহ হালালা‘ করার প্রস্তাবও দেয় সে। কিন্তু মধ্যযুগীয় বর্বর ‘হালালা’ নিয়ম মানতে রাজি হননি নাসরিন। তারপরই তাঁর মুখে অ্যাসিড ছুঁড়ে মারে প্রাক্তন স্বামী ইশাক বলে অভিযোগ।

[আরও পড়ুন: উদয়পুরের মতো হত্যাকাণ্ড মহারাষ্ট্রেও, মুণ্ডচ্ছেদ চিকিৎসাকর্মীর, দাবি আরএসএসের]

নির্যাতিতার পরিবার সূত্রে খবর, অ্যাসিড হামলায় মুখের অনেকটাই পুড়ে যায় নাসরিনের। তাঁকে দ্রুত বরেলি জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আপাতত সেখানেই চিকিৎসাধীন তিনি। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নির্যাতিতার সঙ্গে দেখা করতে হাসপাতালে যান বরেলির পুলিশ সুপার সত্যার্থ অনিরুদ্ধ পঙ্কজ। পুলিশের কাছে নাসরিন জানিয়েছেন, নিজের বড় ভাই ও তাঁকে লাগাতার ‘হালালা’র জন্য চাপ দিছিল ইশাক। দাবি মেনে না নেওয়ায় এই হামলা।

Advertising
Advertising

প্রসঙ্গত, সংবিধানে সুরক্ষিত মৌলিক অধিকারগুলি লঙ্ঘন করে, এই সওয়াল করে মুসলিম সমাজে চালু থাকা নিকাহ হালালা ও বহুবিবাহ প্রথাকে চ্যালেঞ্জ করে একাধিক পিটিশন জমা পড়েছে সুপ্রিম কোর্টে। বহুবিবাহ বৈধ থাকায় একজন মুসলিম পুরুষ চারটি বিয়ে করতে পারেন, আর নিকাহ হালালা-য় একজন মুসলিম মহিলাকে, ডিভোর্স হওয়ার পর আগের স্বামীর কাছে ফিরে যেতে চাইলে অন্য এক পুরুষকে বিয়ে করে তাঁর কাছ থেকে বিচ্ছেদ নিতে হবে।

[আরও পড়ুন: অসমের বিজেপি সরকারের পাশে শিণ্ডে অ্যান্ড কোং, বন্যাত্রাণে অনুদান দেবেন ৫১ লক্ষ টাকা]

Advertisement
Next