Advertisement

যোগীর মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ, জায়গা পেলেন কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া জিতিন প্রসাদ

07:07 PM Sep 26, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী বছরই উত্তরপ্রদেশে (Uttar Pradesh) বিধানসভা নির্বাচন। তার আগেই নতুন করে মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath)। দিনকয়েক আগেই কংগ্রেস থেকে আসা জিতিন প্রসাদ-সহ আরও ৬ জন ঠাঁই পেলেন নয়া মন্ত্রিসভায়।

Advertisement

২০২২ সালে উত্তরপ্রদেশে হাইভোল্টেজ নির্বাচন। তার আগে বেশ কিছুদিন ধরে সে রাজ্যের মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণের ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল। তাতেই রবিবার সিলমোহর দিলেন যোগী আদিত্যনাথ। এদিন জিতিন প্রসাদকে গান্ধী অডিটোরিয়ামে শপথবাক্য পাঠ করান উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপাল আনন্দীবেন প্যাটেল। জিতিন প্রসাদ ছাড়াও নয়া মন্ত্রিসভায় জায়গা পেয়েছেন ছত্রপাল সিং, পলটু রাম, সংগীতা বলবন্ত, সঞ্জীব কুমার, দীনেশ খাতিক এবং ধরমবীর প্রজাপতি। এদিন প্রত্যেকেই শপথ নিলেন।

 

[আরও পড়ুন: ‘দেশের অর্থনীতি সামলাতে এসবিআইয়ের মতো চারটি ব্যাংক দরকার’, মন্তব্য নির্মলার]

কংগ্রেস সরকারের প্রাক্তন মন্ত্রী জিতিন প্রসাদ গত লোকসভা নির্বাচনে লাখিমপুর খেরি জেলার ধাউরাহরা থেকে প্রায় ১ লক্ষ ৯০ হাজার ভোটে জয়লাভ করেছিলেন। এরপর চলতি বছরের ৯ জুন কংগ্রেস ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগ দেন। উত্তরপ্রদেশের ভোট মানচিত্র অনুযায়ী, রাজ্যে ১৩ শতাংশ ব্রাহ্মণ ভোট রয়েছে। যা দিনে দিনে কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপির দিকে ঝুঁকেছে। আসন্ন ভোটে ব্রাহ্মণদের পুরো ভোটবাক্স নিজেদের শিবিরে আনতে চাইছে যোগীর দল। আর তাই জিতিন প্রসাদকে মন্ত্রিসভায় আনা হল, এমনটাই মত ওয়াকিবহাল মহলের। ২০১৭ সালে রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ৩২৫টি আসন পায় বিজেপি। সেখানে সমাজবাদী পার্টি পায় ৫৪টি ও ১৯টি আসন পায় বহুজন সমাজ পার্টি। আর এবার উত্তরপ্রদেশের ৪০৩টি আসনের মধ্যে ৩৫০টি সিট পাওয়ার দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

এর আগে ২০১৭ সালের ১৯ মার্চ যোগীর মন্ত্রিসভা গঠিত হয়। পরবর্তীকালে ২০১৯ সালের ২২ আগস্ট নতুন করে মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই সময় আদিত্যনাথের ক্যাবিনেটে ৫৬ জন মন্ত্রী ছিলেন। সম্প্রতি তাঁদের মধ্যেই তিন মন্ত্রীর কোভিডে মৃত্যু হয়েছে।

[আরও পড়ুন: সাইক্লোন ‘গুলাব’ নিয়ে বাড়ছে আতঙ্ক, বেশ কয়েকটি ট্রেন বাতিল ঘোষণা পূর্ব রেলওয়ের]

Advertisement
Next