‘গরিব হতে পারি, ১০ হাজার টাকায় বিক্রি হব না’, যৌনতায় রাজি না হওয়ায় খুন উত্তরাখণ্ডের তরুণী

09:11 AM Sep 25, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘গরিব হতে পারি। কিন্তু মাত্র ১০ হাজার টাকার জন্য নিজেকে বিক্রি করে দিতে পারব না।’ মৃত্যুর আগে নিজের বান্ধবীকে মেসেজ করেছিলেন উত্তরাখণ্ডের ১৯ বছরের তরুণী অঙ্কিতা ভাণ্ডারী। যার মৃত্যু ঘিরে এখন রীতিমতো উত্তাল দেবভূমির রাজনীতি। যত দিন যাচ্ছে ততই বিজেপি নেতার ছেলে তথা অঙ্কিতা খুনের মূল অভিযুক্ত পুলকিত আর্যর একের পর এক কুকীর্তি প্রকাশ্যে আসছে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

ঘটনার সূত্রপাত দিন সাতেক আগে। উত্তরাখণ্ডের হৃষিকেশের কাছে বিজেপি (BJP) নেতা বিনোদ আর্যর ছেলে পুলকিত আর্যর (Pulkit Arya) ছেলের রিসর্টে কর্মরত ১৯ বছরের রিসেপশনিস্ট অঙ্কিতে নিখোঁজ হয়ে যান ১৮ সেপ্টেম্বর। পরে জানা যায় ওই রিসর্টের মালিক পুলকিত এবং রিসর্টের ম্যানেজার ও এক কর্মী মিলে অঙ্কিতাকে খুন করেছে। প্রায় দিন পাঁচেক নিখোঁজ থাকার পর হৃষিকেশের একটি খালের ধার থেকে অঙ্কিতার দেহ পাওয়া গিয়েছে।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: দুর্গাপুজোর উদ্বোধনে নয়, অষ্টমীতে কলকাতায় আসতে পারেন অমিত শাহ]

এই ঘটনার তদন্তের যত গভীরে যাচ্ছে, ততই প্রকাশ্যে আসছে অভিযুক্ত পুলকিতের কুকীর্তি। বিজেপি নেতার ছেলের ওই রিসর্টে বহু বেআইনি কাজ হত বলে পুলিশ দাবি করেছে। জানা গিয়েছে, অঙ্কিতার (Ankita Bhandari) মতো তরুণী রিসেপশনিস্ট এবং রিসর্টের অন্যান্য মহিলা কর্মীদের বাধ্য করা হত অতিথিদের ‘স্পেশ্যাল সার্ভিস’ দিতে। অঙ্কিতাকেও পুলকিত অতিথিদের সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিল। কিন্তু অঙ্কিতা তাতে রাজি হননি। পুলকিতের চাপের পরই নিজের বান্ধবীকে তিনি মেসেজ করেন,’আমি গরিব হতে পারি কিন্তু মাত্র ১০ হাজার টাকার জন্য নিজেকে বিক্রি করে দিতে পারব না।’

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: যত কাণ্ড যোগীরাজ্যে, ক্লাসে ধমকের ‘বদলা’ নিতে প্রিন্সিপালকে তিনবার গুলি ছাত্রের]

পুলিশ (Uttarakhand Police) সূত্রের খবর, গত ১৮ সেপ্টেম্বর পুলকিত, তাঁর রিসর্টের ম্যানেজার এবং এক কর্মী কাজের নামে অঙ্কিতাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। খালের ধারে গাড়ি দাঁড় করিয়ে মদ্যপান করে। এরপরই অঙ্কিতার সঙ্গে তাদের ঝগড়া শুরু হয়। রাগে তিনজন মিলে ১৯ বছরের তরুণীকে খালের ধার থেকে ফেলে দেয়। আপাতত অভিযুক্ত ৩ জনই পুলিশ হেফাজতে। রিসর্টটিও গুঁড়িয়ে দিয়েছে উত্তরাখণ্ড সরকার। অভিযুক্ত পুলকিত আর্যর বাবা বিনোদ আর্যকেও দল থেকে বহিষ্কার করেছে বিজেপি।

Advertisement
Next