প্রেমিকের সঙ্গে থাকার ইচ্ছা, বিয়ের ২৫ বছর পরে ‘সুপারি’দিয়ে স্বামীকে খুন করালেন স্ত্রী

04:42 PM May 27, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ পঁচিশ বছর ধরে একসঙ্গে থেকেছেন তাঁরা। কিন্তু এতদিনের বিবাহিত জীবন থেকে মুক্তি পেতে স্বামীকে খুনের পরিকল্পনা করলেন স্ত্রী। কারণ নতুন প্রেমিকের সঙ্গে থাকতে চান তিনি। ছয় লক্ষ টাকা সুপারি দিয়ে স্বামীকে খুন করানোর পরিকল্পনা করেছিলেন অভিযুক্ত বছর চল্লিশের মহিলা এবং তাঁর প্রেমিক। সেই মতোই গত ১৭ মে দিল্লিতে (Delhi) খুন করা হয় ওই মহিলার স্বামীকে।

Advertisement

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম মইনুদ্দিন কুরেশি। একটি কারখানা ছিল তাঁর। গত ১৭ মে রাত দশটা নাগাদ গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান তিনি। মৃতের ভাই রুকনুদ্দিন পুলিশে অভিযোগ জানান। এই খুনের তদন্ত করতে গিয়েই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে। পুলিশ জানিয়েছে, প্রায় পাঁচশোটি জায়গার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হয়। সেখান থেকে অনেককে চিহ্নিত করে জিজ্ঞাসাবাদের পর তিনজনকে গ্রেপ্তার করে দিল্লি পুলিশ। জেরায় নিজের দোষ স্বীকার করেছেন অভিযুক্ত মহিলা।

[আরও পড়ুন: ‘ড্রোন উড়িয়ে সব নজর রাখছি’, সরকারি কাজে ফাঁকিবাজি ধরার রহস্য ফাঁস করলেন প্রধানমন্ত্রী]

ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিশ শ্বেতা চৌহান জানিয়েছেন, অভিযুক্ত মহিলার নাম জিবা কুরেশি। ২৯ বছর বয়সী প্রেমিক শোয়েবের সঙ্গে মিলে স্বামীকে (Wife Murders Husband) খুন করার ছক কষেন তিনি। জেরায় জিবা বলেছেন, পঁচিশ বছর আগে তাঁর বিয়ে হয়, সেই সময়ে তিনি নাবালিকা ছিলেন। তিনি অভিযোগ করেছেন, নিয়মিত মদ্যপান করতেন তাঁর স্বামী। সারাদিন ঘুড়ি উড়িয়ে সময় নষ্ট করতেন তিনি। সেই কারণেই তিনি এই বিবাহ বন্ধন থেকে মুক্তি পেতে চেয়েছিলেন।

Advertising
Advertising

জেরায় জিবা আরও জানিয়েছেন, বছর দুয়েক আগে ফেসবুকে ব্যবসায়ী শোয়েবের সঙ্গে আলাপ হয়েছিল তাঁর। সেখান থেকেই দু’জনের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা বিয়ে করবেন। তখনই পরিকল্পনা করেন, স্বামী মইনুদ্দিনকে মেরে ফেলতে হবে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, জিবাই বারবার শোয়েবকে বলেছিলেন তাঁর স্বামীকে খুন করার জন্য। সেই মতো সুপারি কিলার বিনীত গোস্বামীকে ঠিক করেন শোয়েব। উত্তরপ্রদেশে বিনীতের বিরুদ্ধে তিনটি ফৌজদারি মামলা রয়েছে।

খুনের পরিকল্পনা করতে মইনুদ্দিনের কারখানার এলাকা ঘুরে দেখেন বিনীত এবং শোয়েব। অত্যন্ত জনবসতিপূর্ণ এলাকায় খুন করার পরিকল্পনা করা হয়। ঘটনার দিন বাইকে করে দু’জন আসে এবং মইনুদ্দিনকে গুলি করে দিয়ে পালিয়ে যায়। আপাতত তিনজনকেই গ্রেপ্তার করেছে দিল্লি পুলিশ।

[আরও পড়ুন: গেহলটে ভরসা নেই, শচীন পাইলটকেই মুখ্যমন্ত্রীর মুখ করে রাজস্থানে ঝাঁপাতে চায় কংগ্রেস!

 

Advertisement
Next