Advertisement

পেট কাটা, ধড় থেকে বিচ্ছিন্ন মাথা, পচাগলা দেহ উদ্ধার ঘিরে বাবুঘাটে চাঞ্চল্য

09:11 PM Sep 20, 2021 |
Advertisement
Advertisement

অর্ণব আইচ: হুগলি নদীতে ভেসে এল মুণ্ডহীন পচাগলা দেহ (Headless Body)। বোটানিক্যাল গার্ডেনের এক নম্বর ঘাটে দেহটি দেখতে পান স্থানীয়রা। বাবুঘাট থেকে পুলিশ দেহ উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের জন্য এসএসকেএম হাসপাতালে দেহটি পাঠানো হয়। খুন করে কেউ দেহ ভাসিয়ে দিয়েছে বলেই অনুমান তদন্তকারীদের। কোথা থেকে দেহটি ভেসে এল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Advertisement

ঘড়ির কাঁটায় তখন বেলা ১১টা ১৫ মিনিট হবে। বোটানিক্যাল গার্ডেনের (Botanical Garden) এক নম্বর ঘাটে স্নান করছিলেন বেশ কয়েকজন। সেই সময় জলে মুণ্ডহীন দেহটিকে ভাসতে দেখা যায়। তার পেট কাটা। ছিল না নাড়িভুড়ি। স্থানীয়রা পশ্চিম বন্দর থানায় খবর দেয়। ততক্ষণে দেহ বাবুঘাটে পৌঁছয়। রিভার ট্র্যাফিক পুলিশ সেখান থেকেই দেহ উদ্ধার করে। এসএসকেএম হাসপাতালে দেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: অভিষেকের সঙ্গে সাক্ষাৎ লকেট চট্টোপাধ্যায়ের? জল্পনার মধ্যেই মুখ খুললেন BJP সাংসদ]

পুলিশ জানিয়েছে, মুণ্ডহীন ওই দেহটি পুরুষের। তার উচ্চতা ৫ ফুট ৫ ইঞ্চি। তাঁর পেট কাটা। ছিল না নাড়িভুড়ি। দেহটি প্রায় পচাগলা। পোশাকও ছিল না। পুলিশের অনুমান, বহুদিন আগেই দেহটি জলে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল। মনে করা হচ্ছে, পেটে ধারাল অস্ত্রের আঘাতেই খুন (Murder) করা হয়েছে তাঁকে। কেটে নেওয়া হয়েছে মাথাও। তারপর প্রমাণ লোপাটে দেহ জলে ফেলে দেওয়া হয়।

মৃতের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। কীভাবে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে আসার অপেক্ষায় তদন্তকারীরা। তবে এই ঘটনার নেপথ্যে যে কোনও রহস্য লুকিয়ে রয়েছে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই পুলিশ আধিকারিকদের। রহস্য সন্ধানে প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলছেন তদন্তকারীরা।

[আরও পড়ুন: রাজ্যসভার উপনির্বাচনে সুস্মিতা দেবের বিরুদ্ধে প্রার্থী দিচ্ছে না BJP, ঘোষণা শুভেন্দু অধিকারীর]

Advertisement
Next