জীবনযাপনে অস্বচ্ছতা দেখলেই কড়া ব্যবস্থা নেবে দল, জেলা নেতৃত্বকে বার্তা অভিষেকের

09:18 AM Aug 09, 2022 |
Advertisement

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: বছর ঘুরলে পঞ্চায়েত ভোট (Panchayet Election)। তার আগে দলীয় বৈঠকে জনপ্রতিনিধিদের স্বচ্ছতার সঙ্গে সংগঠন করার বার্তা দিলেন তৃণমূলের (TMC) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। সোমবার কোচবিহার ও নদিয়া – দুই জেলার সাংগঠনিক বৈঠকে জেলার জনপ্রতিনিধি ও জেলা সংগঠনের নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। সেখানেই তাঁর স্পষ্ট বার্তা, অশান্তি না করে স্বচ্ছতার সঙ্গে পঞ্চায়েত ভোট করতে হবে।

Advertisement

অভিষেকের আরও বার্তা, জেলাস্তরে দলীয় নেতৃত্বকে একজোট হয়ে চলতে হবে। আলাদা আলাদা দল করা যাবে না। প্রত্যেকের সাংগঠনিক পদক্ষেপের উপর দলের নজর রয়েছে। কেউ কোনওরকম দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়লে দল বরদাস্ত করবে না। স্বচ্ছতার প্রশ্নে দল যে কড়া, তা বোঝাতে এদিন বৈঠকে ডাকা হয়নি নদিয়ার (Nadia) দুই বিধায়ক (MLA) তাপস সাহা ও মানিক ভট্টাচার্যকে। তাঁদের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে নানা অস্বচ্ছতার অভিযোগ উঠেছে।

[আরও পডুন: চলতি অর্থবর্ষে ১০০ দিনের প্রকল্পে কানাকড়িও দেয়নি কেন্দ্র, রাজ্যের অভিযোগ মানলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী]

সম্প্রতি নানামহলে জল্পনা চলছে যে পঞ্চায়েত ভোট এগিয়ে আসতে পারে। তবে তেমন কোনও ইঙ্গিত অন্তত অভিষেকের তরফে দলের নেতারা পাননি বলেই জানা গিয়েছে। কোচবিহারে একটি নির্দিষ্ট জেলা দলীয় কার্যালয় করতে বলেছেন অভিষেক। এতদিন সেখানে নির্দিষ্ট কোনও কার্যালয় ছিল না। সূত্রের খবর, অভিষেক কড়া বার্তা দিয়েছেন, জেলায় নিজেদের মধ্যে কোনও অশান্তি করা যাবে না। একজোট হয়ে একটি দলীয় কার্যালয়ে বসে আলোচনার ভিত্তিতে দলীয় সিদ্ধান্ত নিতে হবে। জীবনযাপনে অস্বচ্ছতা নিয়েও যে কড়া মনোভাব নিয়েছে দল তা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে দুই জেলার বৈঠকেই।

Advertising
Advertising

[আরও পডুন: বাংলার পরবর্তী রাজ্যপাল মোদি-শাহ ঘনিষ্ঠ রাকেশ আস্থানা? দিল্লির অলিন্দে তুঙ্গে জল্পনা]

বলা হয়েছে, স্বচ্ছ ভাবমূর্তি রয়েছে এমন নেতৃত্বকে সামনে রেখেই দল চলবে। প্রত্যেকের উপর দলের শীর্ষ নেতৃত্বের নজর রয়েছে। কোনওরকম অস্বচ্ছতা নজরে এলে তাঁকে নিয়ে কড়া হতে দল দু’মিনিটও সময় লাগবে না। নদিয়া (Nadia) এবং কোচবিহারের ক্ষেত্রে জেলার ব্লক স্তর পর্যন্ত কমিটি নিয়ে দলের জনপ্রতিনিধিদের কাছে মত চাওয়া হয় এদিনের বৈঠকেও। কারও কিছু সামান্য আপত্তির কথাও জানান নেতারা। সেগুলি নথিবদ্ধ করে দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

Advertisement
Next