‘মমতাকে মা সারদার সঙ্গে তুলনা করে ভক্তদের আঘাত করেছেন’! নির্মল মাজির মন্তব্যে ক্ষুব্ধ বেলুড় মঠ

04:51 PM Jun 30, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) মধ্যে মা সারদাকে খুঁজে পেয়েছিলেন তৃণমূল বিধায়ক (TMC MLA) নির্মল মাজি (Nirmal Maji)। সোমবার এক অনুষ্ঠানে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে আজকের দিনের সারদাদেবীর সঙ্গে তুলনা করেছিলেন। এ নিছক আবেগের বশেই নয়, নিজের মন্তব্যের পক্ষে যুক্তিও দিয়েছিলেন বিধায়ক। তাঁর সেই মন্তব্যে এবার ক্ষোভপ্রকাশ করল বেলুড় মঠ (Belur Math)। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সারদাদেবীর তুলনা করে ‘জনৈক’ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মঠের অগনিত ভক্তের হৃদয়ে আঘাত করেছেন। যা বলা হয়েছে, তার কোনও প্রামাণ্য নথি নেই। এমনই মন্তব্য করেছেন বেলুড় মঠের সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ মহারাজ। এহেন বিতর্কমূলক ঘটনার প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে তৃণমূলের মুখপাত্র তথা রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, ”এ ধরনের মন্তব্য তালজ্ঞানহীন, অবাঞ্ছিত, অপ্রয়োজনীয়।”

Advertisement

সোমবার এক অনুষ্ঠানে নির্মল মাজি দাবি করেছিলেন, ‘দিদিই মা সারদা!’ এনিয়ে তাঁর ব্যাখ্যা ছিল, “মৃত্যুর দিন কয়েক আগে বিবেকানন্দর কয়েকজন সতীর্থ মহারাজকে মা সারদা বলেছিলেন, পরবর্তীতে কালীঘাট মন্দির এলাকায় মনুষ্যরূপে জন্ম নেব। সেই জন্মের পর ত্যাগ, তিতিক্ষার মাধ্যমে সামাজিক কাজের সঙ্গে যুক্ত হব। রাজনৈতিক কাজকর্মও করব।” তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে তুমুল চর্চা শুরু হয় নানা মহলে। একাধিকবার দলের তরফে শাস্তি পেলেও দলনেত্রীর প্রতি নির্মল মাজির (Nirmal Maji) শ্রদ্ধা ঠিক কতটা অটুট, তা বোঝাতেই তাঁর এই মন্তব্য বলে মতপ্রকাশও করেন ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ।

[আরও পড়ুন: রাজ্যে বড়সড় নাশকতার ছক? বীরভূমে উদ্ধার ৮১ হাজার ডিটোনেটর]

আর বৃহস্পতিবার এই বিতর্কে আসরে নামল খোদ বেলুড় মঠ। মঠের সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দর মন্তব্য, ”সম্প্রতি এক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মা সারদা সম্পর্কে যা মন্তব্য করেছেন, আমরা তাতে ব্যথিত। মা সারদাদেবীর (Sarada Devi)সংস্পর্শে এসেছেন রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের অনেক সন্ন্যাসী ও বহু গৃহী। প্রতিষ্ঠানের যা কিছু বইপত্র, প্রামাণ্য নথি আছে, তাতে এরকম কিছু নেই যে তিনি পরবর্তীকালে দক্ষিণ কলকাতায় জন্ম নেবেন ও সামাজিক কাজকর্মের সঙ্গে জড়িয়ে পড়বেন। তাহলে ওই রাজনৈতিক নেতা কেন এমন উদ্ভট তথ্য দিলেন প্রকাশ্যে, তা জানতে আমরা আগ্রহী।”

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: জন্ম থেকে নেই দু’হাত, পা দিয়েই ব্ল্যাকবোর্ডে ম্যাজিক দেখান প্রাথমিক শিক্ষক জগন্নাথ]

এনিয়ে তৃণমূলের মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর তথা রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, ”স্বামী সুবীরানন্দ মহারাজের বক্তব্য আমরা সবিনয়ে গ্রহণ করেছি। তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব তা গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করছে। পরিষ্কার বলছি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন নিজের আলোয় আলোকিত, তাঁর কাছাকাছি এই মুহূর্তে কেউ নেই। তাই এই তুলনা সম্পূর্ণ অপ্রাসঙ্গিক ছিল। আমরা যাঁরা তাঁকে শ্রদ্ধা, সম্মান করি, তাঁদের উচিত সেই অনুভূতি নিয়ে এমন কিছু না বলা যাতে তাঁর নাম অযথা বিতর্কে জড়ায়। মঠের ভক্তরা যাঁরা নির্মল মাজির এই মন্তব্যে আঘাত পেয়েছেন, তাঁদের বলি, আমরা দুঃখিত।আপনারা নিশ্চয়ই বুঝবেন, এটা তৃণমূলের বক্তব্য কোনওভাবেই নয়।” 

This browser does not support the video element.

Advertisement
Next