Advertisement

‌ভাইয়ের শ্রাদ্ধের আয়োজনে বেরিয়ে মর্মান্তিক পরিণতি, রিকশা‌য় ওড়না পেঁচিয়ে প্রাণ গেল দিদির

12:08 AM Nov 29, 2020 |

অর্ণব আইচ:‌ শনিবার শহরের বুকে ঘটে গেল মর্মান্তিক ঘটনা। কয়েকদিন আগে মৃত ভাই মারা গিয়েছিলেন। তাঁরই শ্রাদ্ধের ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন দিদি। রিকশায় ওই মহিলার ওড়না পেঁচিয়ে যায়। শেষপর্যন্ত উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলেও শেষরক্ষা হয়নি। ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার (Kolkata) দক্ষিণাংশের বাঁশদ্রোণী থানা এলাকায়।

Advertisement

জানা গিয়েছে, মৃতের নাম সবিতা মিস্ত্রী। স্বামীর নাম নিরঞ্জন মিস্ত্রী। তাঁরা থাকেন বাঁশদ্রোণী থানার অন্তর্গত ব্রহ্মপুর–বাদামতলা এলাকার সম্প্রীতি অ্যাপার্টমেন্টে। সম্প্রতি পঞ্চাশোর্ধ্ব ওই মহিলার ভাই মারা গিয়েছিলেন। সামনেই শ্রাদ্ধানুষ্ঠান। এদিন দুপুর ৩টে নাগাদ তাই সবিতা ভাইয়ের শ্রাদ্ধের অনুষ্ঠান আয়োজনের ব্যাপারেই কথা বলতে যাচ্ছিলেন। সঙ্গে ছিলেন স্বামী নিরঞ্জন এবং ভাইয়ের স্ত্রী। তিনজনে একটি মোটরচালিত রিকশায় উঠেছিলেন। কিন্তু কিছুটা যাওয়ার পরই আচমকা সবিতার চুড়িদারের ওড়না রিকশা’‌র চাকায় আটকে যায়। মুহূর্তে গলায় ফাঁস লেগে যায় তাঁর। শেষপর্যন্ত উদ্ধার করে বাঘাযতীন স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা সবিতাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

[আরও পড়ুন: ‘এখানে চাকরি নেই, পরিযায়ী শ্রমিকদের বিজেপি শাসিত রাজ্যে যেতে হয়’, চা-চক্রে তোপ দিলীপের]

প্রাথমিক তদন্তে মনে করা হচ্ছে, রিকশাটি মোটরচালিত হওয়ায় সেটির গতিবেগ অন্যান্য সাধারণ রিকশার তুলনায় কিছুটা বেশিই ছিল। আর সেকারণেই ওড়না রিকশা’‌র চাকায় জড়িয়ে যাওয়ার পর কিছু বুঝে ওঠার আগেই তা ওই মহিলার গলায় পেঁচিয়ে যায়। এই ঘটনায় ওই পরিবারে রীতিমতো শোকের ছায়া নেমে এসেছে। কোনও তরফ থেকে অভিযোগ না আসায় এবং কোনওরকম সন্দেহজনক কিছু না পাওয়ায়, ঘটনাটিকে নিছকই দুর্ঘটনা বলেই জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু মাধ্যমিক পরীক্ষা! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল বিজ্ঞপ্তি ঘিরে শোরগোল]

Advertisement
Next