Advertisement

রাজ্যজুড়ে লাগাতার অশান্তির প্রতিবাদ, স্পিকার নির্বাচন ও বিধানসভা অধিবেশন বয়কট বিজেপির

05:22 PM May 07, 2021 |
Advertisement
Advertisement

কৃষ্ণকুমার দাস ও রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: রাজ্য জুড়ে লাগাতার অশান্তির প্রতিবাদ। স্পিকার নির্বাচন ও বিধানসভা অধিবেশন বয়কট করল বিজেপি। শুক্রবার দিলীপ ঘোষ জানালেন, বিধায়কদের নিরাপত্তা নিশ্চিত না হলে, রাজ্যের অশান্তি বন্ধ না হলে কোনও বিজেপি বিধায়ক আসবেন না বিধানসভায়।  

Advertisement

নির্বাচনের (WB Assembly Election 2021) পরই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে হিংসার খবর উঠে এসেছে। প্রাণ গিয়েছে অন্তত ১৬ জনের। তাঁদের মধ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কর্মীরা রয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েই অশান্তি মোকাবিলায় কড়া পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাফ বলেছিলেন, বাংলা শান্তির জায়গা। কোনও অশান্তি বরদাস্ত করা হবে না। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ঘটে চলা অশান্তির প্রতিবাদ করেছে বিজেপি। ৫ মে দেশজুড়ে ধরনার ডাকও দেয় গেরুয়া শিবির। ইতিমধ্যেই জল গড়িয়েছে হাই কোর্ট পর্যন্ত। বাংলায় ভোট পরবর্তী হিংসা আর অশান্তি রুখতে কী কী পদক্ষেপ করেছে রাজ্য? কোথায় কতটা অশান্তি ছড়িয়েছে? এর বিস্তারিত তথ্য চেয়ে স্বরাষ্ট্রসচিবের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে কলকাতা হাই কোর্ট (Calcutta High Court)। এই পরিস্থিতিতেই অধিবেশন বয়কটের সিদ্ধান্তের কথা জানালেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 

[আরও পড়ুন: শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে ‘কৌশলী’ মুকুল রায়, দলকে এড়িয়ে বিধানসভায় তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে সাক্ষাৎ]

শুক্রবার মেদিনীপুরের সাংসদ বললেন, “রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অশান্তি চলছে। যতদিন পর্যন্ত না অশান্তি বন্ধ হচ্ছে, বিধায়কদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত কোনও বিজেপি বিধায়ক বিধানসভা অধিবেশনে শামিল হবে না। ” এমনকী স্পিকার নির্বাচনেও তাঁরা শামিল হবেন না বলেই জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি এদিন দিলীপ জানিয়েছেন, রাজ্যজুড়ে ঘটে চলা অশান্তির কারণে অনেক বিধায়ক এদিন শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে শামিল হতে পারেননি। যাঁরা এসেছেন তাঁরা কীভাবে ফিরবেন বুঝতে পারছেন না। উল্লেখ্য, ৫ মে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকাল ৬ মে, মোট ১৪৩ জন বিধায়ক শপথ নিয়ছেন। শুক্রবার  শপথ নেওয়ার কথা ১৪৮ জনের। 

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: নিম পাতা থেকে কাঁচা হলুদ, রোগ প্রতিরোধের সব সামগ্রী বাড়ি পৌঁছে দেবে পঞ্চায়েত দপ্তর]

Advertisement
Next