আদালতের নির্দেশের পরও পুলিশি নিরাপত্তা দিতে ‘ঘুষ’চাওয়ার অভিযোগ, কাঠগড়ায় হরিদেবপুরের ওসি

12:04 PM Jun 12, 2022 |
Advertisement

গোবিন্দ রায়: আদালতের নির্দেশে নিরাপত্তা দিয়েছিল পুলিশ। দু’মাসের নিরাপত্তার খরচের বিল হাতে পেতেই চক্ষু চড়কগাছ। দু’মাসের নিরাপত্তার খরচ প্রায় সাড়ে ১২ লক্ষ টাকা! আবার হরিদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকের (OC) বিরুদ্ধে ঘুষ চাওয়ারও অভিযোগ এনেছেন ওই ব্যক্তি। পুরো বিষয়টি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। এরপরই এই মামলায় কলকাতার পুলিশ কমিশনারের কাছে হলফনামা তলব করল কলকাতা হাই কোর্ট (Calcutta High Court)। 

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

দীর্ঘদিন ঘরে কলকাতা হাই কোর্টে জমি সংক্রান্ত বিবাদের মামলা চলছে। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি  সেই মামলার মামলাকারীকে পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল হাই কোর্ট। বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার নির্দেশ ছিল, মামলাকারীকে পুলিশি নিরাপত্তা দিতে হবে। তবে তার খরচ বহন করবে মামলাকারী নিজে।

[আরও পড়ুন: ‘হাওড়ায় যাবেন না’, শুভেন্দু অধিকারীকে নোটিস কাঁথি থানার, বাড়ির সামনে মোতায়েন পুলিশও]

আদালতের এই নির্দেশের পর নিরাপত্তা দিতে সম্মত হয় হরিদেবপুর থানার পুলিশ। তবে অভিযোগ, প্রায় দু’মাসের নিরাপত্তার জন্য মামলাকারীর কাছে থানার তরফে চাওয়া হয়, ১২ লক্ষ ৩৬ হাজার ৭৬০ টাকা। হরিদেবপুর থানার ওসির বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ, ৫ লক্ষ টাকা ঘুষ চাওয়া হয়।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

এর প্রেক্ষিতে আদালত অবমাননার অভিযোগে হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন মামলকারী। তাঁর অভিযোগে বিস্ময় প্রকাশ করেন আদালতের বিচারপতি। মামলার পরবর্তী শুনানিতে থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিককে আদালতে হাজির হয়ে এর কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি মান্থা। একই সঙ্গে এনিয়ে হলফনামা দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি। মামলার পরবর্তী শুনানি ১৭ জুন। 

[আরও পড়ুন: ‘শান্তিরক্ষা’য় বেলডাঙা থানার আইসি বদল রাজ্যের, কাঁথি থানায় FIR নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে]

Advertisement
Next