Advertisement

আসন নিয়ে বামেদের সঙ্গে দর কষাকষি নয়, ভোটের প্রস্তুতি বৈঠকে প্রদেশ কংগ্রেসকে বার্তা রাহুলের

02:26 PM Nov 28, 2020 |

দীপঙ্কর মণ্ডল: হাতে হাত রেখে একুশে তৃণমূল-বিজেপিকে ঠেকাতে লড়াইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এ রাজ্যের বাম ও কংগ্রেস। প্রদেশ নেতাদের ভোটের রণকৌশল ঠিক করে দিতে শুক্রবার ভারচুয়াল বৈঠক করেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। তাতে তিনি পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ (WBPCC) নেতাদের আরও বেশি গণ আন্দোলনে জোর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

Advertisement

আর কয়েকমাস পরে রাজ্যে বিধানসভা ভোট। তার প্রস্তুতি শুক্রবার দিল্লি থেকে তিনি এ রাজ্যের প্রদেশ নেতৃত্বের সঙ্গে ভারচুয়াল বৈঠক করেন। বৈঠকে ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী, সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য, বিধায়ক মনোজ ভট্টাচার্য ও নেপাল মাহাতো। এআইসিসির (AICC) তরফে ছিলেন বাংলার দুই পর্যক্ষেক জিতিন প্রসাদ ও কেসি বেনুগোপালও। বাংলার মানুষের সমর্থন আদায়ে আরও বেশি করে গণ আন্দোলন গড়ে তোলার নির্দেশ দেন রাহুল গান্ধী।

[আরও পড়ুন: মিলল রেলের চূড়ান্ত ছাড়পত্র, আগামী সপ্তাহের শুরুতেই খুলে যাচ্ছে মাঝেরহাট ব্রিজ]

বামেদের সঙ্গে কংগ্রেসের আসনরফা নিয়ে আলোচনা এখন তুঙ্গে। তবে তার মাঝেই রাহুল গান্ধী সাফ নিজের বক্তব্য জানিয়ে দিলেন যে আসন নিয়ে বেশি দর কষাকষি চলবে না। এদিন দলের প্রদেশ নেতাদের তিনি বলেন, “বামেদের সঙ্গে যৌথ কর্মসূচি চালিয়ে যেতে হবে। উভয় পক্ষের আরও নিবিড় সম্পর্ক তৈরি করতে হবে। যারা যেখানে শক্তিশালী, সেখানে প্রার্থী তারাই দেবে।”

[আরও পড়ুন: একুশের ভোট প্রস্তুতি তুঙ্গে, জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠকে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক]

রাজ্যে কংগ্রেসের সংগঠন যেখানে অপেক্ষাকৃত দুর্বল, সেখানে দলকে শক্তিশালী করার নির্দেশ দেন কংগ্রেস সহ-সভাপতি। কারও সঙ্গে কোনও বিবাদে না জড়ানোরও নির্দেশ দেন তিনি। তৃণমূল বা বিজেপির কর্মসূচি নিয়ে বিচলিত না হয়ে নিজেদের স্ট্র্যাটেজি অনুযায়ী মানুষের পাশে থাকার কথা বলেন। আগামী দিনে গোটা দেশে কংগ্রেসই যে ভবিষ্যৎ, তা ফের মনে করিয়ে দেন সোনিয়া তনয়। প্রদেশ কংগ্রেস নেতারাও খুশি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে ভারচুয়াল বৈঠক করে। তাঁদের প্রতিক্রিয়, শীর্ষনেতার থেকে ভোকাল টনিক পেয়েছেন, তাতে তাঁরা তৃপ্ত এবং নতুন করে লড়াইয়ে জোর পাচ্ছেন।

Advertisement
Next