‘পুষ্করে স্নান করলে পাপ ধুয়ে যেত’, মুখ্যমন্ত্রীকে বেনজির আক্রমণ ‘নাস্তিক’বিমান বসুর

04:15 PM Dec 07, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের মুখ্যমন্ত্রীকে নজিরবিহীন কটাক্ষ করলেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু (Biman Basu)। পুষ্কর সফর নিয়ে বললেন, “পুষ্করে স্নান করলে পাপ ধুয়ে যেত।”  নাস্তিক বামনেতার এই মন্তব্যের নিন্দা করেছে তৃণমূল।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

রবিবার দিল্লি সফরে গিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। সোমবার দুপুরে রাজস্থানে আজমেঢ় শরিফ দরগায় যান তিনি। মাজারে চাদর ও ফুল চড়ান। সঙ্গে ছিলেন ফিরহাদ হাকিম। সেখান থেকে বেরিয়ে পুষ্করের ব্রহ্মা মন্দিরে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে পুজো দেন। কিছুক্ষণ বসেছিলেন ব্রহ্মা সাবিত্রী ঘাটে। সেই পুষ্কর মন্দিরে পুজো দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন করা হলে এএনআই-এ সাক্ষাৎকারে মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র কটাক্ষ করেন বিমান বসু।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: অধ্যক্ষ ঘেরাও মুক্ত হলেও মেডিক্যাল কলেজে অশান্তি অব্যাহত, দাবি না মানলে আমরণ অনশনের হুঁশিয়ারি]

বিমান বসু বলেন, “আজমেঢ় শরিফ গিয়েছেন, পুষ্করে পুজো দিয়েছেন খুব ভাল কথা। কিন্তু ওনার উচিত ছিল পুষ্করে স্নান করা। তাহলে ওনার সমস্ত পাপ ধুয়ে যেত।” বিমান বসুর এই মন্তব্যে ক্ষুব্ধ শাসকদল। নাস্তিক রাজনীতিবিদের মুখে পাপ-পুণ্যের ব্যাখ্যা শুনে খানিকটা অবাকও হয়েছেন বিদ্বজ্জনেরা। তবে মুখ্যমন্ত্রীর আজমেঢ় শরিফ ও পুষ্কর মন্দিরে পুজো দেওয়ার নেপথ্যে রাজনৈতিক অভিসন্ধি রয়েছে বলে দাবি করেছেন ওয়াকিবহল মহলের একাংশ। তাঁদের দাবি, নিজেদের ধর্মনিরপেক্ষ হিসেবে সকলের সামনে তুলে ধরতেই একাজ বলে দাবি করেন তাঁরা। 

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

প্রসঙ্গত, সোমবার ব্রহ্মার মন্দিরে পুজো দিয়ে বেরনোর সময় অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হন মুখ্যমন্ত্রী। মন্দির থেকে তাঁর কনভয় বেরতেই জনা কয়েক ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান তোলেন। সঙ্গে সঙ্গে দাঁড়িয়ে যায় কনভয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ তাঁদের দিকে তেড়ে যেতেই ভিড়ের মধ্যে মিশে যান তাঁরা।

[আরও পড়ুন: দুর্নীতির ‘মাথা’ কে জানলে সাক্ষী হিসেবে আদালতে আসুন! নাম না করে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়কে খোঁচা কুণালের]

Advertisement
Next