দিলীপকে ‘ব্ল্যাকআউট’ সুকান্ত-অমিতাভদের! নেপথ্যে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বার্তা? গেরুয়া শিবিরে জোর জল্পনা

12:15 PM May 10, 2022 |
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার: দলের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে (Dilip Ghosh) ‘ব্ল্যাকআউট’ করলেন দলের সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) অমিতাভ চক্রবর্তী! পিছনে কি দিল্লির বার্তা? চর্চা শুরু হয়েছে বঙ্গ বিজেপিতে (BJP)। বিক্ষুব্ধ শিবিরের অভিযোগ, অমিতাভ চক্রবর্তীর নির্দেশেই সব কিছু করা হচ্ছে। অথচ সোমবার রাজ্য দপ্তরেই শুধু নয়, জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িতে গিয়েও কবিগুরুকে শ্রদ্ধা জানান দিলীপ ঘোষ। সেই ছবি নিজের ফেসবুকে দিয়েছেন প্রাক্তন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। কিন্তু বিজেপি ওয়েস্ট বেঙ্গল-এর ফেসবুক পেজে কেন নেই দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতির কবিপ্রণামের ছবি? তাঁকে বাদ দেওয়ার কারণ কী? তাহলে কি অমিতাভ চক্রবর্তীরা ‘ব্ল্যাক আউট’ করলেন দিলীপ ঘোষকে? এর পিছনে দিল্লির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বার্তা রয়েছে বলে অনুমান।

Advertisement

রাজ্য বিজেপি দপ্তরে কবিগুরুকে শ্রদ্ধা জানান দলের সর্বভারতীয় সভাপতি দিলীপ ঘোষ, প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহা, দলের সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তী। অনুষ্ঠানের ছবি ফেসবুক, টুইটারে পোস্ট করেন অমিতাভ চক্রবর্তী (Amitava Chakraborty)। সেখানেও দিলীপবাবুর ছবি বাদ রয়েছে। বালুরঘাটেও কবিগুরুকে শ্রদ্ধা জানান রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। সেই ছবিও অমিতাভবাবু সোশ্যাল মিডিয়ায় দিয়েছেন। রাজ্য বিজেপির ফেসবুক পেজেও দেখা গিয়েছে, রাজ্য দপ্তরে রবীন্দ্রনাথের (Rabindranath Tagore) ছবিতে শ্রদ্ধার জানানোর কর্মসূচিতেও দিলীপ ঘোষ অনুপস্থিত। এমন ব্ল্যাক-আউটে ক্ষোভ আছড়ে পড়ছে আদি বিজেপির অন্দরে।

[আরও পড়ুন: শক্তি কিছুটা হারাল ‘অশনি’, বঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস]

দু’দিনের রাজ্য সফরে এসে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ প্রাধান্য দিয়েছেন সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumder) ও শুভেন্দু অধিকারীকে। যেটা কারও নজর এড়ায়নি। সুকান্ত ও শুভেন্দুই অমিত শাহর সঙ্গে হেলিকপ্টারে সর্বক্ষণের সফরসঙ্গী ছিলেন। শুধু তাই নয়, ভিক্টোরিয়ার অনুষ্ঠান ও সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বাড়িতে নৈশভোজে কিংবা রাতে নিউটাউনের হোটেলে দলের কোর গ্রুপকে নিয়ে যে বৈঠক করেন শাহ, সেখানেও ডাক পাননি দিলীপ। বঙ্গ সফরে দলের বিক্ষুব্ধ শিবিরের হয়ে সওয়াল করা দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতিকে কি নম্বর দিলেন না কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী? মালব‌্যকে পছন্দ নয়, ‘সিনিয়র লিডার’ চাই এমন দাবিও প্রকাশ্যে বলেছেন দিলীপ। সুকান্তর অভিজ্ঞতা কম বলেও মন্তব‌্য করেছিলেন। অথচ কোর গ্রুপের বৈঠকে ছিলেন সেই মালব‌্য-সুকান্ত-শুভেন্দুরা।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা দপ্তরে বিস্ফোরণ, জরুরি বৈঠক ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী]

তাহলে কি ‘টিম অমিতাভ’র পিছনে দিল্লির (Delhi) সমর্থন রয়েছে? এর আগেও চুঁচুড়ায় দলের মিছিলে সুকান্ত-দিলীপ-লকেট একসঙ্গে হাঁটেন। সেক্ষেত্রেও অমিতাভ শুধু সুকান্তর ছবি দিয়েছিলেন। দিলীপ ও লকেটের ছবি দেননি। ফের দিলীপের ছবি বাদ দেওয়ায় অনেকেই মনে করছেন দিল্লির সংকেত রয়েছে।

Advertisement
Next