Advertisement

ঋণপ্রদানকারী অ্যাপের পাসওয়ার্ড চুরি, হ্যাকাররা হাতাল কোটি কোটি টাকা

10:01 PM Sep 21, 2021 |
Advertisement
Advertisement

অর্ণব আইচ: ঋণপ্রদানকারী অ্যাপ হ্যাক (App Hack)। একটি বেসরকারি সংস্থার পাসওয়ার্ড ডিকোড করে প্রায় দেড় কোটি টাকা হাতিয়ে নিল হ্যাকার। তদন্ত করে অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনম থেকে ওই হ্যাকারকে গ্রেপ্তার করলেন লালবাজারের সাইবার থানার আধিকারিকরা। পুলিশের ধারণা, এই হ্যাকিংয়ের পিছনে রয়েছে বড় একটি চক্র।

Advertisement

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত ওই হ্যাকারের নাম কেনি রেড্ডি নাকারাজু। ওই বেসরকারি সংস্থাটি ঋণ প্রদানের সঙ্গে জড়িত। ঋণ প্রদানের জন্য একটি সফটওয়্যার তথা অ্যাপ ব্যবহার করে সংস্থাটি। সংস্থাটির অভিযোগ অনুযায়ী, গত বছরের ৪ অক্টোবর থেকে গত ২৬ জানুয়ারি পর্যন্ত ওই অ্যাপ ব্যবহার করেই ১ কোটি ৪৪ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে সাইবার জালিয়াতরা। কারণ, ওই ঋণ প্রদানকারী অ্যাপটি ব্যবহার করতে গেলে বিশেষ কিছু পাসওয়ার্ড ও কোড লাগে। সেই কোড ও পাসওয়ার্ড শুধু সংস্থার কর্তাদের পক্ষে জানা সম্ভব।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: প্রতিশ্রুতি রাখলেন অভিষেক, পেনশন পাচ্ছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শ্যালিকা ইরা বসু]

অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে সাইবার থানার আধিকারিকরা বুঝতে পারেন যে, এই কাজ সাইবার জালিয়াত তথা হ্যাকারদের। কোনওভাবে ওই পাসওয়ার্ড ‘ডিকোড’ করে তারা হ্যাক করেছে। এর পরই প্রায় তিন মাস ধরে তারা হাতিয়ে নিয়েছে এই টাকা। এই ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেন গোয়েন্দারা। তাঁরা যোগাযোগ করেন ওই অ্যাপ সংস্থাটির সঙ্গে। সেই সূত্র ধরেই জানা যায়, ওই হাতিয়ে নেওয়া টাকা ঢুকেছে বিভিন্ন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে।

জানা যায়, কেনি রেড্ডি নাকারাজু নামে ওই ব্যক্তির ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে ১৫ লক্ষ টাকা। ওই ব্যক্তি অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনমের বাসিন্দা। সেখানেই হানা দেন সাইবার থানার গোয়েন্দারা। ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে কলকাতায় নিয়ে আসা হয়। মঙ্গলবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে তোলা হলে তাকে ১ অক্টোবর পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন বিচারক। পুলিশের মতে, ধৃত ব্যক্তি ছাড়াও ওই চক্রের আরও মাথারা ছড়িয়ে রয়েছে দক্ষিণ ভারত ও দেশের বিভিন্ন জায়গায়। তারা অন্য কোনও অ্যাপ থেকে হ্যাকিং করছে, এমনও সম্ভব। ওই ‘হ্যাকিং’ চক্রের পাণ্ডাদের সন্ধানে তল্লাশি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: অক্টোবরেই খুলছে স্কুল? প্রস্তুতি শুরু শিক্ষাদপ্তরের]

Advertisement
Next