Advertisement

বিপদ বাড়িয়েছে করোনার নতুন স্ট্রেন, লন্ডন ফেরত যাত্রীদের বাড়ি গিয়ে পরীক্ষা শুরু পুরসভার

10:13 PM Dec 31, 2020 |
Advertisement
Advertisement

কৃষ্ণকুমার দাস: বছরের শুরুতেই হয়তো দেশে ছাড়পত্র পেতে চলেছে করোনার ভ্যাকসিন (Corona Vaccine)। তবে এখনও কমছে না সংক্রমণ। চিন্তা বাড়িয়েছে করোনার নতুন স্ট্রেন। আর নয়া এই স্ট্রেনের সংক্রমণ রুখতে লন্ডন (London) থেকে আসা বিমানের যাত্রীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বৃহস্পতিবার থেকেই কোভিড পরীক্ষা শুরু করল কলকাতা (Kolkata) পুরসভা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

নতুন স্ট্রেনে সংক্রমিত ও মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন যুবকের সঙ্গে যাঁরা লন্ডন থেকে ফিরে বাড়িতে আইসলেশনে আছেন তাঁদের বাড়ি গিয়ে লালারস সংগ্রহ করছেন পুরসভার স্বাস্থ্যকর্মীরা। শুধু তাই নয়, প্রতিদিন সকাল ও সন্ধ্যায় ওই বিমানযাত্রী এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের জ্বর বা অন্য উপসর্গ আছে কি না তাও জেনে নিচ্ছেন পুরকর্মীরা। পুরসভার স্বাস্থ্যবিভাগের প্রশাসক অতীন ঘোষ জানিয়েছেন, ‘‌‘‌স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে যাত্রীদের তালিকা নিয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে পরীক্ষার কাজ শুরু হয়েছে। সংক্রমণ পরীক্ষার পাশাপাশি ওই যাত্রীর পরিবারের যাবতীয় তথ্যও স্বাস্থ্য দপ্তরকে জানানো হবে।’‌’‌

[আরও পড়ুন: বাসে উঠলেই দিতে হবে ১৪ টাকা! দাবিপূরণ না হলে আন্দোলনের হুমকি বাসমালিকদের]

তবে এদিন পুরকর্তারা স্বীকার করে নিয়েছেন, করোনা সংক্রমণ নিয়ে মানুষের সার্বিক উদাসীনতা অনেক বেড়ে গিয়েছে। তাই ২৫ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর, পার্ক স্ট্রিট থেকে ইকো পার্ক, সমস্ত দিনেই করোনা ভীতি কাটিয়ে হাজার হাজার মানুষের ভিড় রাস্তায় নেমেছে। তবে স্বাস্থ্য দপ্তরের বুলেটিনে অবশ্য জানানো হয়েছে, গত ২৪ ঘন্টায় করোনার জেরে কলকাতায় মারা গিয়েছেন মাত্র পাঁচজন। এই সময়ে শহরের বুকে নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ২৯২ জন, কিন্তু সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৫৭ জন। ‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনায় নতুন করে সংক্রমিতের সংখ্যা ১১৭০। মৃত্যু হয়েছে ২৯ জনের, যে সংখ্যা বুধবার ছিল ২৮। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার কবল থেকে মুক্তি পেয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫৩৭ জন। এ নিয়ে বাংলায় মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ৫ লক্ষ ৩০ হাজার ৩৬৬। আক্রান্ত সাড়ে পাঁচ লক্ষেরও বেশি রোগীর মধ্যে এই মুহূর্তে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১১ হাজার ৯৮৫। দৈনিক নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৪০,২৫৪। এর মধ্যে ৭.৭৬ শতাংশ রিপোর্ট পজিটিভ।

[আরও পড়ুন: ‘মাস্কহীন ২০২১’ -এর শুভেচ্ছাপত্রেও রাজ্য সরকারকে খোঁচা ধনকড়ের]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next