সাহস হল কী করে! মুখ্যমন্ত্রী প্রসঙ্গে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ কুণালের

11:14 AM Sep 21, 2022 |
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার: একজন বিচারপতি হয়ে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ‌্যায় কীভাবে রাজ্যের মুখ‌্যমন্ত্রী সম্পর্কে ‘শুনেছি উনি প্রতিহিংসাপরায়ণ’ বললেন, প্রশ্ন তুললেন তৃণমূলের রাজ‌্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। এ নিয়ে রীতিমতো সুর চড়িয়ে নিজের প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘‘তাঁর সাহস হল কী করে? একজন বিচারপতির মুখ দিয়ে এই কথা ছেড়ে দেওয়া হল!’’ তাঁর কথায়, ‘‘শুনেছি শব্দটা নিয়ে আমি প্রতিবাদ করলাম। আপনি যা করার করে নিন।’’

Advertisement

মঙ্গলবার এবিপি আনন্দের ‘যুক্তি-তক্কো’ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এই প্রসঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে করা বিচারপতি গঙ্গোপাধ‌্যায়ের একটি মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেছেন কুণাল। বিচারব‌্যবস্থার একাংশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতদুষ্ট অভিযোগ সংক্রান্ত অভিষেকের মন্তব‌্য নিয়ে বিচারপতি গঙ্গোপাধ‌্যায় সোমবার বলেছিলেন, একবার ভেবেছিলেন রুল জারি করে এজলাসে ডেকে এনে অভিষেককে অভিযোগ প্রমাণ করতে বলবেন। তিনি পারতেন না। সেক্ষেত্রে তিন মাসের জেল খাটতে হত। কুণালের প্রশ্ন, ‘‘একজন বিচারপতির উইশলিস্ট! এটা হতে পারে?’’ এবিপি আনন্দে বিচারপতি গঙ্গোপাধ‌্যায়ের সাক্ষাৎকার নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠেছে নানা মহলে।

[আরও পড়ুন: পরপর দু’দিন পুরুলিয়ায় রেল অবরোধ কুড়মি সমাজের, বাতিল বহু ট্রেন, নাজেহাল যাত্রীরা]

তৃণমূলের রাজ‌্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ এদিন সেই সাক্ষাৎকার নিয়ে বলতে গিয়ে বলেন, এই সাক্ষাৎকার দেখে মনে হয়েছে এটি ‘আংশিক’। মুখ‌্যমন্ত্রী সম্পর্কে বিচারপতির ‘শুনেছি উনি প্রতিহিংসাপরায়ণ’ মন্তব্যের প্রেক্ষিতে কুণাল সাংবাদিক সুমন দে-কে অনুরোধ করেন ‘পূর্ণাঙ্গ’ সাক্ষাৎকারটি দেখানো হোক। এর মাঝেই কুণাল তুলে আনেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ‌্যায়ের বলা আরও একটি মন্তব্যের প্রসঙ্গ। মুখ‌্যমন্ত্রীর সঙ্গে একটি অনুষ্ঠানে বিচারপতি গঙ্গোপাধ‌্যায়ের দেখা হওয়ার সময় তিনিই এগিয়ে গিয়ে নিজের পরিচয় দিয়েছিলেন বলে উল্লেখ করেন। তারপরই সেই ‘প্রতিহিংসাপরায়ণ’ সংক্রান্ত মন্তব‌্য। কুণালের প্রশ্ন, ‘‘আমি নিজে যেচে নিমন্ত্রণ নেব। আবার খাবারের মান যাচাই করব!’’

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: একাদশ শ্রেণির ছাত্রীকে হোয়াটসঅ্যাপে অশ্লীল মেসেজ প্রধান শিক্ষকের, অভিযোগে উত্তাল তেহট্ট]

Advertisement
Next