অভিষেকের ছবি দিয়ে ‘নতুন তৃণমূলে’র হোর্ডিংয়ে ছয়লাপ দক্ষিণ কলকাতা, কী ব্যাখ্যা কুণাল ঘোষের?

08:23 PM Aug 17, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রহস্যে ভরা হোর্ডিংয়ে ছয়লাপ দক্ষিণ কলকাতা। তাতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) ছবি। লেখা, “আগামী ছ’মাসের মধ্যে সামনে আসবে নতুন তৃণমূল।” বিষয়টা ঠিক কী? তা নিয়ে জোর জল্পনা শুরু সব মহলে। যদিও টাঙানোর কিছুক্ষণের মধ্যেই সরিয়ে ফেলা হয়েছে এই হোর্ডিং। এ প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)।

Advertisement

মঙ্গলবার দক্ষিণ কলকাতার রাসবিহারী, কালিঘাট, ভবানীপুর-সহ বিভিন্ন এলাকায় নজরে পড়ে বেশ কিছু পোস্টার। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া সেই পোস্টারের কোনওটিতে লেখা. “চলুন লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হন। এই লড়াই আমাদের ২৪ এর লড়াই।” কোনও পোস্টারে আবার লেখা, “আগামী ৬ মাসের মধ্যে সামনে আসবে নতুন তৃণমূল। ঠিক যেমন সাধারণ মানুষ চায়।” নিচে লেখা, “আশ্রিতা ও কলরব।” অর্থাৎ তাঁদের তরফে দেওয়া হয়েছে এই পোস্টার। কিন্তু কী এই নতুন তৃণমূল? তা নিয়ে শুরু হয়েছে চর্চা। হোর্ডিংয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি নেই। তা নিয়েও তৈরি হয়েছে জল্পনা। যদিও বিষয়টাকে নিয়ে যেভাবে চর্চা চলছে তা একেবারেই ভুল বলে দাবি তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গে টাকা না দিলে চাকরি মেলে না: বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়]

হোর্ডিং প্রসঙ্গে এদিন কুণাল ঘোষ বলেন, “যে দৃষ্টিভঙ্গিতে বিরোধীরা কথা বলছে, চর্চা চলছে সেখান থেকে সরে এসে আলোচনা করা ভাল। অভিষেকের কোনও সংলাপকে সামনে রেখে কেউ এই হোর্ডিং দিয়েছেন। এটা খুব স্বাভাবিক বিষয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বার্তা দিয়েও হোর্ডিং তৈরি হয়। এখানে এত আলোচনার মতো কোনও ঘটনা নেই। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেত্রী, অভিষেক সেনাপতি। আর নতুন তৃণমূলের কথা অভিষেক বহুবার বলেছেন। এটা নতুন কিছু নয়, নতুন তৃণমূল মানে আরও শৃঙ্খলাবদ্ধভাবে এগিয়ে যাওয়ার কথা বলা হয়েছে।” তবে চর্চা শুরু হতেই হোর্ডিংগুলি সরিয়ে ফেলা হয়েছে বলে খবর।

[আরও পড়ুন: মহাকরণে বড়সড় অগ্নিকাণ্ড, পুড়ে ছাই একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সরকারি নথি]

Advertisement
Next