স্বাধীনতা দিবসে প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে শশী পাঁজা-মালা রায়, দেখা হল না পার্থর সঙ্গে!

09:02 PM Aug 15, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বাধীনতা দিবসে প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা (Shashi Panja) ও কলকাতা দক্ষিণের সাংসদ মালা রায়। বেশ কিছুক্ষণ সেখানে ছিলেন তাঁরা। কিন্তু দেখা হল না প্রাক্তন সহযোদ্ধা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) সঙ্গে।

Advertisement

সোমবার প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে যান রাজ্যের বর্তমান শিল্পমন্ত্রী তথা নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা ও তৃণমূল সাংসদ মালা রায়। প্রথমে শহিদ বেদিতে মাল্যদান করেন তাঁরা। এরপর ঋষি অরবিন্দের সেল ঘুরে দেখেন তাঁরা। যান নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর সেলেও। সংশোধনাগারে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও সামিল হন তাঁরা। এদিন মোট ৯৯ জন বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। তাঁদের হাতে পতাকাও তুলে দেন। সব মিলিয়ে বেশ কিছুক্ষণ সেখানে ছিলেন মালা রায় ও শশী পাঁজা। কিন্তু তা সত্ত্বেও তাঁদের সঙ্গে দেখা হল না পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের।

[আরও পড়ুন: পতাকা উত্তোলন করতে গিয়ে বিপত্তি, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়ার]

জানা গিয়েছে, সংশোধনাগারে এদিন বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হলেও তাতে সামিল হননি পার্থ চট্টোপাধ্যায়। গোটা সময়টা সেলে নিজেকে বন্দি করে রেখেছিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী। সেই কারণেই শশী পাঁজা ও মালা রায়ের সঙ্গে তাঁর দেখা হয়নি বলেই খবর। গ্রেপ্তারির পর তৃণমূলের তরফে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সমস্ত পদ থেকে সরানো হয়েছে। তারপর এদিনের ঘটনায় কানাঘুষো শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

Advertising
Advertising

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার হুইলচেয়ারে বসে যাতায়াতের পথে ঋষি অরবিন্দের সেলের সামনে মাথানত করে কিছুক্ষণ ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। হাতজোড় করে প্রণাম করেন। ওই সেলটিতে কিছুক্ষণ সময় কাটানোর ইচ্ছাপ্রকাশও করেন। কারা কর্তৃপক্ষ তাঁর আরজিতে সাড়া দেন। স্বাধীনতা দিবসে ওই সেলে ঢুকতে দেওয়া হবে বলে আশ্বাসও দেওয়া হয় তাঁকে। তা সত্ত্বেও সোমবার জেলের সেল থেকে বেরতে চাননি পার্থ। তাই আর ঋষি অরবিন্দর সেলেও যাওয়া হয়নি তাঁর।

[আরও পড়ুন: ‘ইডি-সিবিআইকে তথ্য দিচ্ছে কুণাল ঘোষ’, বিস্ফোরক বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র, পালটা তৃণমূল মুখপাত্রের]

Advertisement
Next