নিরাপত্তায় নজর, এবার রাতের শহরে ট্রাফিক সার্জেন্টদের কাছে থাকবে আগ্নেয়াস্ত্র, নির্দেশ লালবাজারের

09:56 AM May 12, 2022 |
Advertisement

অর্ণব আইচ: আরও কড়া হচ্ছে কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police)। একদিকে যেমন নাগরিকদের হয়রানি রুখতে ব্যবস্থা নিচ্ছে তারা। তেমনই আবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ট্রাফিক সার্জেন্টদের অস্ত্র রাখার নিদান দিচ্ছে লালবাজার (Lalbazar)। বুধবার এমনই নির্দেশিকা জারি হয়েছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি একাধিক ক্ষেত্রে ট্রাফিক সার্জেন্টদের হুমকির মুখে পড়তে হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেই এই নতুন নির্দেশিকা জারি হল বলে মনে করেছে ওয়াকিবহাল মহল।

Advertisement

কোনও নাগরিক দুর্ঘটনার ব্যাপারে খবর দিলেই সঙ্গে সঙ্গে সেই তথ্য গ্রহণ করে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। এই নির্দেশ দিয়েছে লালবাজার। একইসঙ্গে এবার থেকে নিরাপত্তার জন্যই রাতের ডিউটিতে অস্ত্র রাখতে হবে ট্রাফিক সার্জেন্টদেরও (Traffic Sergeant)। প্রয়োজনে দিনের বেলায় ডিউটিতেও অস্ত্র রাখতে পারবেন তাঁরা। সংশ্লিষ্ট থানা থেকেই রাতের ডিউটিতে থাকা সার্জেন্টদের নিতে হবে আগ্নেয়াস্ত্র ও বুলেট। কিছুদিন আগেই বেহালায় এক ট্রাফিক সার্জেন্টকে খুনের হুমকি দেওয়া হয়। এর পর ট্রাফিক সার্জেন্টদের নিরাপত্তার ব্যাপারে গুরুত্ব দেয় ট্রাফিক বিভাগ।

[আরও পড়ুন: PUBG খেলতে খেলতে প্রেম-যৌনতা! বিবাহিত প্রেমিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ, নিস্তার পেতে আদালত যুবক]

এদিকে, নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী, কেউ থানা, কন্ট্রোল রুম বা ট্রাফিক গার্ডে ফোন করে যদি দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির ব্যাপারে খবর দেন, তবে তাঁকে পালটা প্রশ্ন করা যাবে না। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধারকাজে নামতে হবে পুলিশকে। ওই নাগরিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকলে তাঁর নিজের ইচ্ছা না থাকলে তাঁকে সাক্ষী করা যাবে না।

Advertising
Advertising

প্রয়োজনে পুলিশ ওই নাগরিককে সাহায্য করবে। যদি ওই ‘ভাল নাগরিক’ সাক্ষী হতে চান, তবে তাঁর সুবিধামতো জায়গা ও সময়েই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে হবে। তিনি যাতে হেনস্তার শিকার না হন, সেদিকে পুলিশ নজর রাখবে। তাঁর সুবিধার দিকটি দেখে সবরকম ব্যবস্থা নিতে হবে বলে জানিয়েছে লালবাজার।

[আরও পড়ুন: ২৫ বছর পর বাবার মতোই ‘আত্মঘাতী’ কাশীপুরের বিজেপি নেতা, পারিবারিক অশান্তি চাপা দিতেই খুনের তত্ত্ব?]

Advertisement
Next