উদ্দাম যৌনতার পর আর্থিক বিবাদের জেরেই সোনাগাছিতে খুন যৌনকর্মী, অবশেষে গ্রেপ্তার ২

10:59 AM Aug 06, 2022 |
Advertisement

অর্ণব আইচ: সোনাগাছিতে যৌনকর্মী হত্যাকাণ্ডের কিনারা। ভিন রাজ্য থেকে গ্রেপ্তার দুই অভিযুক্ত। ধৃতরা হল সুরজ সিং ও মণীশ সিং। শুক্রবার বিকেলে উত্তরপ্রদেশের রায়বেরেলি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের আধিকারিকরা ওই দু’জনকে গ্রেপ্তার করে। শনিবার তাদের আদালতে তোলা হবে।

Advertisement

পুলিশ সূত্রে খবর, ওই দুই যুবককে যৌনকর্মী তাঁর নিজের বাড়িতে গিয়ে মদ্যপানের জন্য ডাকেন। কিন্তু তারা অস্বীকার করে। ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছুটা দূরে বসে অভিযুক্তরা মদ্যপান করে। মদ্যপান করার পর তারা ফিরে এসে ওই যৌনকর্মীর সন্ধান করে। পুলিশ জানিয়েছে, এরপর ওই মহিলার সঙ্গে সুরজ ও মণীশ উদ্দাম যৌনতায় মেতে ওঠে। তারপরই টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়াঝাটি শুরু হয়। সূত্রের খবর, মণীশের পকেটে একটি ছুরি ছিল। সে তখন পকেট থেকে ছুরিটি বের করে ওই মহিলাকে কোপ মারে। সে সময় যন্ত্রণায় ওই যৌনকর্মী চিৎকার করতে থাকেন। তখন দুই অভিযুক্ত ভয় পেয়ে যায়। তারপরেই তারা ওই যৌনকর্মীকে ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে খুন করে।

[আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্সি জেলের ২ নম্বর সেলে ঠাঁই পার্থর, কীভাবে কাটল প্রথম রাত?]

খুনের পর ওই মহিলার ঘরে থাকা যাবতীয় জিনিসপত্র নিয়ে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। জানা গিয়েছে, ঘটনার দিন রাতেই তারা হাওড়া থেকে ট্রেন ধরে উত্তরপ্রদেশে চলে যায়। তবে ধৃত দুই যুবক শুধু মদ্যপানের জন্যই কলকাতায় এসেছিল নাকি তাদের অন্য কোনও উদ্দেশ্য ছিল? তা এখনও জানা যায়নি।

Advertising
Advertising

উল্লেখ্য, গত ২৩ জুলাই বড়তলা থানা এলাকার ৯৯ নম্বর ডিসি মিত্র লেনের একটি ঘর থেকে যৌনকর্মীর রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হয়। ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁর গলায় ও ঘাড়ে আঘাত করার প্রমাণ মিলেছিল। এই খুনের ঘটনার তদন্তে নেমে সিসিটিভি ফুটেজের সূত্র ধরে পুলিশ সুরজ ও মণীশকে গ্রেপ্তার করে। ধৃতদের শনিবার আদালতে তোলা হবে। তাদের নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে গোটা ঘটনার বিস্তারিত তথ্য পেতে চান তদন্তকারীরা।

[আরও পড়ুন: কমনওয়েলথ গেমস: কুস্তিতে সোনা জয় বজরং-সাক্ষী-দীপকের, রুপো অংশু মালিকের]

Advertisement
Next