মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তায় গলদের জের, দায়িত্ব থেকে সরলেন বিবেক সহায়

09:55 PM Jul 06, 2022 |
Advertisement

গৌতম ব্রহ্ম: মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনের নিরাপত্তায় গাফিলতি। তার জেরে দায়িত্ব থেকে সরানো হল রাজ্যের ডিরেক্টর অফ সিকিউরিটি বিবেক সহায়কে (Vivek Sahay)। সেই জায়গায় দায়িত্বে এলেন পীযূষ পাণ্ডে। তিনি এডিজি (কারা)-র দায়িত্বে ছিলেন। বিবেক সহায়কে রাজ্যের ডিজিপি (প্রভিশনাল) পদে পাঠানো হয়েছে। অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর সিকিউরিটি পদে আনা হয়েছে আর এক অভিজ্ঞ আধিকারিক মনোজ ভার্মাকে। তিনি আইজি (আইন শৃঙ্খলা)-র দায়িত্বও সামলাবেন। বর্তমানে তিনি বারাকপুরের কমিশনারের হিসেবে দায়িত্ব সামলাচ্ছেন। বুধবার এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করে নবান্ন।

Advertisement

বুধবার নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠক ছিল। সেখানেও এদিন মুখ্যমন্ত্রী (CM Mamata Banerjee) বাড়িতে অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির অনুপ্রবেশ প্রসঙ্গে তোলেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়-সহ কয়েকজন মন্ত্রী। তাঁরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। উদ্বেগ প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা বাড়ানোর প্রস্তাব দেন বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ও। এরপরই রদবদল করা হয় মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে।

[আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে ফের কুরুচিকর মন্তব্য দিলীপ ঘোষের, গ্রেপ্তারির দাবিতে সরব অভিষেক]

জানা গিয়েছে, একসময় প্রধানমন্ত্রীর স্পেশ্যাল প্রোটেকশন গ্রুপে (SPG) ছিলেন পীযূষ। মনমোহন সিং তখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ওইসময় লাতিন আমেরিকা, ইউরোপ সহ বহু দেশে প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়েছেন পীযূষ পাণ্ডে। ফলে প্রধানমন্ত্রী বা মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার কী ধরনের বন্দোবস্ত থাকা দরকার তার স্পষ্ট ধারনা রয়েছে তাঁর।

Advertising
Advertising

উল্লেখ্য, শনিবার রাতে নিরাপত্তারক্ষীদের চোখ এড়িয়ে লোহার রড হাতে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে ঢুকে পড়েছিলেন হাফিজুল মোল্লা নামে এক যুবক। রবিবার সকালে তাঁকে আটক করে কালীঘাট থানার পুলিশ। তারপর থেকেই নিরাপত্তা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন ওঠে। বিবেক সহায়কে ডেকে অসন্তোষের কথা জানিয়ে দেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। তখনই বদলির ইঙ্গিত মিলেছিল। এবার বিবেককে সরিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে আনা হল সিনিয়র অফিসার পীযূষ পাণ্ডেকে।

[আরও পড়ুন: ‘আমি কালীর উপাসক, কাউকে ভয় করি না’, পোস্টার বিতর্কে বিজেপিকে জবাব মহুয়ার]

Advertisement
Next