Advertisement

‘এক্সিট না একজ্যাক্ট পোল, দু’শোর কাছাকাছি আসন পাবই’, চ্যালেঞ্জ দিলীপ ঘোষের

02:22 PM Apr 30, 2021 |
Advertisement
Advertisement

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: হাতে মাত্র একদিন। রবিবার স্পষ্ট হয়ে যাবে, পরবর্তী পাঁচবছরের জন্য বাংলার দায়িত্ব কার হাতে যাবে। যদিও এক্সিট পোল বলছে, জোর টক্কর সত্ত্বেও সামান্য হলেও পাল্লাভারী তৃণমূলের। তবে জয় নিয়ে একশো শতাংশ আশাবাদী বিজেপি। তাই এক্সিট পোলকে গুরুত্ব দিতে নারাজ রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তাঁর কথায়, “এক্সিট না একজ্যাক্ট পোল।”

Advertisement

কার্যত প্রতিদিনই প্রাতঃভ্রমণে বেরোন মেদিনীপুরের সাংসদ তথা রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখান থেকে আক্রমণ করেন তৃণমূলকে। রাজ্যের একাধিক নীতির বিরোধিতায় সুর চড়ান। শুক্রবারও তার অন্যথা হয়নি। এদিন মর্নিং ওয়াক সেরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। কথা বলেন এক্সিট পোল নিয়ে। সেখানেই তিনি বুঝিয়ে দিলেন, সংস্থাগুলি আনুমানিক যে ফলের কথা বলছে, তা মিলবে না। দিলীপ ঘোষের কথায়, “এক্সিট না একজ্যক্ট পোল। কিছু সংস্থা তৃণমূলকে এগিয়ে রেখেছে। তবে অনেকেই আছে, যারা চার মাস আগে যা বলেছিল আজও তাই বলছে। ২ তারিখ সব বোঝা যাবে। আমরা যা চেয়েছি তাই হবে। ২০০’র কাছাকাছি আসন পাবই।”

[আরও পড়ুন: শেষকৃত্যে ঘুষ বন্ধে বড় সিদ্ধান্ত পুরসভার, হাসপাতাল ও বাড়িতে কোভিডে মৃতদের দাহ নিখরচায়]

গতকাল কর্তব্যরত অবস্থায় সিআরপিএফের আইজির তারাপীঠ (Tarapith Temple) মন্দিরে যাওয়া নিয়ে একটি টুইট করেছিলেন দিলীপ ঘোষ। সেই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “কর্তব্যরত অবস্থায় একাজ করা উচিত হয়নি। তৃণমূলের জেলা সভাপতিও গিয়েছিলেন, ফলে লোকের কাছে ভুল বার্তা যেতে পারে।”

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: পয়লা মে’র আগে ৩ কোটি টিকা পাঠান, ভ্যাকসিন কিনতে চেয়ে মোদি সরকারকে চিঠি রাজ্যের]

Advertisement
Next