Advertisement

‘খেলা হবে স্লোগান তুলে এখন পালাতে চাইছে’, ভোটের দফা কমানো নিয়ে তৃণমূলকে তোপ দিলীপের

09:56 AM Apr 18, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘খেলা হবে’ স্লোগান তুলে যারা ভোটযুদ্ধে নেমেছিল, তারা এখন বেগতিক বুঝে খেলার ময়দান ছেড়ে পালাতে চাইছে। তাই বাকি তিনদফার ভোট একদিনে করানোর জন্য বারবার আবেদন করছেন। তৃণমূলের বিরুদ্ধে ফের বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। রবিবার নিউটাউনে প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একথা বললেন তিনি। আত্মবিশ্বাসী সুরে তাঁর আরও দাবি, এখনও পর্যন্ত যে ১৮০ আসনে ভোট হয়ে গিয়েছে, তার মধ্যে ১২৫টি আসন বিজেপিই দখল করতে চলেছে।

Advertisement

একুশে বঙ্গ জয়ে মরিয়া কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন শাসকদল। ভোট ঘোষণার বহু আগে থেকে তাই এখানে সংগঠন ঢেলে সাজিয়েছেন দিল্লির নেতারা। আর ৮ দফায় ভোটপর্ব চলাকালীন প্রায় প্রতিদিনই অমিত শাহ, জেপি নাড্ডাদের মতো বিজেপি শীর্ষ নেতারা তো বটেই, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও ঘনঘন বাংলায় আসছে ভোটের প্রচারে। একেক দফা ভোট শেষে তাঁরা আত্মবিশ্বাসী সুরে জানাচ্ছেন, কটি আসন আসবে তাঁদের দখলে।২৯৪ আসনের মধ্যে দু’শোর বেশি আসন নিয়ে এবার বাংলার ক্ষমতা দখল করবে বিজেপি (BJP), এই দাবি বারবারই শোনা গিয়েছে তাঁদের গলায়। আট দফার মধ্যে ৫ দফা ভোটগ্রহণ পর্ব শেষ। ১৮০ টি কেন্দ্রে প্রার্থীদের ভাগ্য নির্ধারণ সম্পূর্ণ। অধিকাংশ জনরায় যে বিজেপির পক্ষেই গিয়েছে, তা ফের দাবি করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর হিসেব, ১৮০র মধ্যে ১২৫টি আসন পাচ্ছে গেরুয়া শিবির। এই হিসেবই বুঝিয়ে দিল, দু’শোর লক্ষ্যে ক্রমশই এগোচ্ছে বিজেপি, এই বার্তা দিলেন তিনি।

[আরও পডুন: ‘অবৈধভাবে আড়ি পাতা হচ্ছে মমতার ফোনে’, অডিও কাণ্ডে কমিশনে নালিশ তৃণমূলের]

বিধায়ক থেকে সাংসদ হয়েছেন। সামলাচ্ছেন দলের রাজ্য সভাপতির পদও। একুশের ভোটে প্রার্থী হননি, কিন্তু বঙ্গে পদ্ম ফোটানোর ভার অনেকটাই তাঁর। তাই প্রচার, সভা, রোড শো এসব নিয়মিতই করছেন দিলীপ ঘোষ। আর প্রায় রোজই তাঁর বক্তব্য ঘিরে বিতর্কের অবকাশ তৈরি হচ্ছে রাজনৈতিক মহলে। রবিবার প্রাতঃভ্রমণ থেকেও তেমনই এক বিতর্ক জিইয়ে তুললেন। বললেন, ”আমরা যেভাবে চাইছি, সেভাবেই ভোট হচ্ছে। আমরা খুশি। যারা পালাতে চাইছে, তারাই একদিনে ভোট করানোর দাবি তুলছে।”

[আরও পডুন: শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী দিলীপ ঘোষ! কটাক্ষ দেবাংশুর, বিঁধলেন মোদি-শাহকেও]

এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণের দাপটের কথা মাথায় রেখে এত দফায় ভোট না করে বঙ্গের বাকি তিনদফা ভোট একদিনে করানোর দাবিতে বারবার নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করেছে রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল (TMC)। ঠিক উলটো পথে হেঁটে বিজেপির দাবি, পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ীই ভোট হোক। কমিশনও জানিয়ে দিয়েছে, ভোটের দফা কমানো সম্ভব নয়। এখানেই কমিশনের বিরুদ্ধে বিজেপির হয়ে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। আজ, দিলীপ ঘোষের বক্তব্যও সেই অভিযোগকেই আরও উসকে দিল না? ”আমরা যেভাবে চাইছি, সেভাবেই ভোট হচ্ছে”, এই কথাতেই তো ইঙ্গিত স্পষ্ট।

Advertisement
Next