বাংলার কোষাগারে স্বস্তি! এবার জিএসটি ক্ষতিপূরণের ৮১৪ কোটি টাকা দিল কেন্দ্র

09:30 AM Nov 26, 2022 |
Advertisement

গৌতম ব্রহ্ম: দু’দিন আগেই জিএসটি ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রাপ্য পাওনা নিয়ে সরব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, মুখ্যমন্ত্রীর অর্থ উপদেষ্টা অমিত মিত্র কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীকে চিঠিও লেখেন জিএসটির বকেয়া (GST Compensation) টাকার দাবিতে। এবার তার সুফল মিলল। চাপের মুখে শুক্রবার ‘জিএসটি ক্ষতিপূরণ’ বাবদ ৮১৪ কোটি টাকা বাংলাকে দিল কেন্দ্র।

Advertisement

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক (Ministry Of Finance) বৃহস্পতিবারই রাজ্যগুলিকে জিএসটি বাবদ বকেয়া টাকা রাজ্যগুলিকে দিয়েছে। মূলত, চলতি বছরের এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত জিএসটি বাবদ বকেয়া টাকা দেওয়া হয়েছে। সেই খাতেই ৮১৪ কোটি টাকা রাজ্যকে দেওয়া হয়েছে বলে নবান্ন জানিয়েছে। এই নিয়ে গত কয়েক দিনে কেন্দ্রের কাছে তৃতীয়বার বকেয়া পেল রাজ্য। গতকালই প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় (PM Awas Yojona) বাড়ি তৈরির জন্য ৮২০০ কোটি টাকা রাজ্যকে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। গত সপ্তাহেই কেন্দ্র প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনা প্রকল্প বাবদ ৫৮৪ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: পুর-সংশোধনী আইনে বাড়ল সুবিধা, বাড়ি, ফ্ল্যাট কিনলে রেজিস্ট্রেশনের সঙ্গেই মিউটেশন]

তবে একাধিক প্রকল্পে বাংলার জন্য টাকা বরাদ্দ করা হলেও ১০০ দিনের প্রাপ্য এখনও অধরাই। তা নিয়ে নতুন করে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। রাজ্যের অভিযোগ, একাধিকবার আবেদন জানিয়েও কোনও সুরাহা হয়নি।একুশ-বাইশ অর্থবর্ষে ১০০ দিনের কাজের জন্য ৬৭৫০ কোটি টাকা কেন্দ্রের কাছে রাজ্যের প্রাপ্য। সেই বকেয়া পাওনা আদায়ে মুখ্যমন্ত্রী বেশ কিছুদিন ধরেই সচেষ্ট। শুক্রবারই মুখ‌্যমন্ত্রী এবার সর্বদলীয় প্রতিনিধিদল পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছেন বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Biman Banerjee)। 

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: B.Ed ও D.El.Ed কলেজ পিছু ৫০ হাজার টাকা আদায় করেন মানিক! আদালতে দাবি ইডির]

সংবিধান দিবস উপলক্ষে শুক্রবার বিধানসভায় বক্তব‌্য রাখেন মুখ‌্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, ‘‘গঙ্গা-পদ্মার ভাঙনের টাকা দিচ্ছে না কেন্দ্র। কতদিন ধরে ঘাটাল মাস্টারপ্ল‌্যান পড়ে আছে! অল পলিটিক‌্যাল পার্টির প্রতিনিধিদের নিয়ে দিল্লিতে প্রতিনিধি দল যাক। স্পিকারকে এমন প্রস্তাব দিচ্ছি।’’ এই প্রতিনিধিদল দিল্লিতে সব মন্ত্রীদের কাছে বাংলার হয়ে দরবার করবে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাবে বলেও মুখ‌্যমন্ত্রী জানান।

Advertisement
Next