Advertisement

রাজ্যে ফের বাড়ল Covid বিধিনিষেধের মেয়াদ, কোথায় কোথায় মিলবে ছাড়?

03:26 PM Jul 29, 2021 |
Advertisement
Advertisement

মলয় কুণ্ডু: করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে রাজ্যজুড়ে জারি কোভিড বিধিনিষেধ। ১ আগস্ট থেকে বিধিনিষেধের ক্ষেত্রে আরও ছাড় মিলবে?  চলবে লোকাল ট্রেন? এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে চতুর্দিকে। এই পরিস্থিতিতে বিজ্ঞপ্তি জারি করে রাজ্যবাসীর সংশয় দূর করল রাজ্য সরকার। আগামী ১৫ আগস্ট পর্যন্ত ফের বাড়ল বিধিনিষেধের মেয়াদ। 

Advertisement

নবান্নের তরফে এই মর্মে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। তাতেই উল্লেখ রয়েছে, আগামী ১৫ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ল কোভিড বিধিনিষেধের মেয়াদ। সরকারি কোনও অনুষ্ঠান আয়োজন করা যেতে পারে। তবে Indoor Hall-এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে হবে। আসন সংখ্যার ৫০ শতাংশ লোকজন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে পরতে হবে মাস্ক। ব্যবহার করতে হবে স্যানিটাইজার। মানতে হবে শারীরিক দূরত্ববিধি। এছাড়াও এবারের নির্দেশিকায় রাতে কড়া বিধিনিষেধের কথাও বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়েছে। রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত বাইরে বেরনোর ক্ষেত্রে কঠোর বিধিনিষেধ জারি রয়েছে। স্বাস্থ্য পরিষেবা, আইন শৃঙ্খলার সঙ্গে যুক্ত পরিষেবা এবং অন্যান্য জরুরি পরিষেবা ছাড়া এই সময়ে যানবাহন এবং রাস্তাঘাটে সাধারণ মানুষের চলাফেরায় নিষেধাজ্ঞা জারি।

[আরও পড়ুন: কুয়ো খুঁড়তে গিয়ে মিলল বিশালাকার নীলা! দাম শুনলে আঁতকে উঠবেন]

উল্লেখ্য, তা সত্ত্বেও রাতের শহরে নিয়ম ভঙ্গকারীর সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে। চলতি মাসেই পার্ক স্ট্রিট এবং মিন্টো পার্কের দু’টি অভিজাত হোটেলে পার্টির আয়োজনের অভিযোগ ওঠে। বুধবার রাতে ভবানীপুরের দু’টি হুক্কা বারেও কোভিডবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত গ্রেপ্তার ১০ জন। আগামী আগস্ট মাসেই করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে নিয়ম ভঙ্গকারীদের রোখা না গেলে বিপদ আরও বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই নিয়ম ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও উল্লেখ রয়েছে নবান্নের কোভিড (Covid-19) নির্দেশিকায়। 

এছাড়া রাজ্যে জারি থাকা বিধিনিষেধে কোনও বদল নেই। দোকান, বাজার নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী খোলা থাকবে। মেট্রো পরিষেবাও সাধারণের জন্য ইতিমধ্যেই চালু হয়ে গিয়েছে। বেসরকারি বাসেও গন্তব্যে পৌঁছনোর সুযোগ পাচ্ছেন সকলেই। অনেকেই আশা করেছিলেন আগস্টের শুরু থেকেই হয়তো আমজনতার জন্য চালু হতে পারে লোকাল ট্রেন পরিষেবা। তবে নবান্নের জারি করা সাম্প্রতিক নির্দেশিকায় সে বিষয়ে কিছুই উল্লেখ করা হয়নি। বেসরকারি এবং সরকারি দপ্তরে কাজের ক্ষেত্রে ওয়ার্ক ফ্রম হোমের (Work From Home) উপর বেশি জোর দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: কবে থেকে ‘উৎসশ্রী’ পোর্টালে শিক্ষকদের বদলির আবেদন? জানিয়ে দিল স্কুলশিক্ষা দপ্তর]

Advertisement
Next