Advertisement

বঙ্গ ভোটে ভরাডুবির কারণ কী? প্রথমবার সাধারণ মানুষের মত জানতে চাইবে CPM

10:55 AM Jun 24, 2021 |
Advertisement
Advertisement

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: ভোটে ভরাডুবি। পরবর্তীতে কারণ অনুসন্ধান। পার্টির অন্দরে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। তারপরেও থেমে থাকছে না আলিমুদ্দিন। ভরাডুবির কারণ সন্ধানে এবার জনগনের দরবারে সিপিএম (CPM)। জানতে চাওয়া হচ্ছে, কেন বামেদের এমন ভরাডুবি। আমজনতার পরামর্শ পাওয়ার পরেই ভরাডুবির কারণ চূড়ান্ত করবে পার্টি।

Advertisement

প্রথম বাম ও কংগ্রেসবিহীন বিধানসভা। জোট করে ভোটের ময়দান থেকে শূন্য হাতে ফিরতে হয়েছে। কেন এমন বিপর্যয়? পার্টির অন্দরে চলছে ময়নাতদন্ত। জেলার পর পার্টির শাখা সংগঠন। পরে রাজ্যের কমরেডকুলের শিরোমণিরা দু’-দু’বার বৈঠক করে কিছু কারণ চিহ্নিত করেছেন। সেখানে অতিরিক্ত তৃণমূল বিরোধিতা, বিজেপি সম্পর্কে নরম অবস্থান, কংগ্রেস ও ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের সঙ্গে জোট, সাংগঠনিক দুর্বলতা, প্রচারে খামতি, গণসংগঠনের নিষ্ক্রিয়তা, পার্টি নেতৃত্বের জনবিচ্ছিন্নতা, আর্থিক অনটনের মতো অনেক কারণ চিহ্নিত করা হয়। কিন্তু ভোটের ফল বেরনোর পর থেকেই বিভিন্ন বামপন্থী সংগঠন, বিশিষ্ট জন, সাধারণ মানুষ বিপর্যয়ের জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে একাধিক কারণ উল্লেখ করে মন্তব্য বা যুক্তি পেশ করছেন। সেসব যুক্তি-ব্যাখ্যাকে এবার অখাদ্য বলে নর্দমায় ফেলে দিতে নারাজ আলিমুদ্দিনের কর্তারা।

[আরও পড়ুন: ‘রাজ্যে ভ্যাকসিন সিন্ডিকেট চলছে, যুক্ত সবাই’, ভুয়ো করোনা টিকাকরণ শিবির নিয়ে তোপ দিলীপের]

তাই এবার নিজেদের যুক্তি-ব্যাখ্যার পরেও পার্টির বাইরে থাকা সাধারণ মানুষের দ্বারস্থ হচ্ছেন কমরেডকুলের শিরোমণিরা। তাঁদের কাছ থেকে পরামর্শ, যুক্তি ও ব্যাখ্যা চাওয়ার সিদ্ধান্ত আলিমুদ্দিনের। আগে বিভিন্ন ক্ষেত্রে এই ধরনের পরামর্শ চাওয়া হলেও নির্বাচনে ভরাডুবির কারণ অনুসন্ধানে পার্টির বাইরের অংশকে যুক্ত করার চিন্তাভাবনা এই প্রথম।

সোশ্যাল মিডিয়ার পাশাপাশি পার্টির বিভিন্ন মুখপত্র মারফত সাধারণ মানুষের কাছে পরামর্শ দেওয়ার আবেদন জানানো হচ্ছে। সামাজিক মাধ্যম ছাড়াও সরাসরি যে কেউ আলিমুদ্দিনে হাজির হয়ে লিখিতভাবে নিজের মতামত দিতে পারবেন। সেইসব পরামর্শ, যুক্তি বা ব্যাখ্যা পাওয়ার পর নিজেদের অনুসন্ধানের সঙ্গে যুক্ত করে যে নির্বাচনী বিপর্যয়ের কারণের খসড়া দলিল তৈরি করা হয়েছে তা চূড়ান্ত করা হবে বলে আলিমুদ্দিন সূত্রের খবর। পার্টির এক রাজ্য কমিটির সদস্য জানিয়েছেন, এর ফলে ভোটে মোর্চার ভুলভ্রান্তি চিহ্নিত করতে আরও গভীরে যাওয়া যাবে। বিশিষ্টজন-সহ সাধারণ মানুষের মতামত নিয়ে আগামী দিনের কৌশল ঠিক করতে নেতৃত্বের পার্টির অনেকটাই সুবিধা হবে।

[আরও পড়ুন: Corona vaccine: কসবার ‘ভুয়ো’ টিকাকরণের তদন্তে এবার কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ]

Advertisement
Next