Advertisement

ধূমপায়ী ও নিরামিষাশীদের করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি কম! সমীক্ষায় মিলল চাঞ্চল্যকর তথ্য

08:22 PM Jan 19, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধূমপায়ী, নিরামিষভোজীদের কোভিড-১৯’এ আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কম। সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষায় এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এসেছে।

Advertisement

সম্প্রতি কাউন্সিল অফ সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ তথা সিএসআইআর-এর (CSIR) তরফে দেশজুড়ে একটি ‘সেরো-সার্ভে’ করা হয়েছিল তাদের ৪০টি প্রতিষ্ঠানে। তাতেই মিলেছে চাঞ্চল্যকর ফলাফল। এক নয়, একাধিক। প্রসঙ্গত ‘সেরো-সার্ভে’ হল সেই সমীক্ষা, যেখানে নির্দিষ্ট সংখ্যক মানুষের ব্লাড সেরাম সংগ্রহ করে, পরীক্ষা করা হয়। আর তার ফল বিশ্লেষণ করেই জেলাস্তরে করোনা সংক্রমণের প্রকোপ পরিমাপ করা হয়।

কী কী? প্রথমত, কোভিড-১৯ শ্বাসযন্ত্রের রোগ হওয়া সত্ত্বেও খানিকটা অভাবনীয়ভাবেই দেখা গিয়েছে ধূমপায়ীদের কোভিডের সংক্রমণের আশঙ্কা কম। নিরামিশাষীদের ক্ষেত্রেও এমনটাই ঘটছে। একই তালিকায় পড়ছেন তারাও, যাদের ব্লাড গ্রুপ ‘ও’। ঠিক এর বিপরীত অবস্থা তাদের, যাদের ব্লাড গ্রুপ ‘বি’ অথবা ‘এবি’। এর কারণ কী? ধূমপায়ী, নিরামিষাশী ও ‘ও’ ব্লাড গ্রুপধারীদের ‘সেরো-পজিটিভিটি’ কম। উলটোদিকে, সমীক্ষার ফল বলছে, যারা গণপরিবহণ ব্যবহার করেন, যারা নিরাপত্তাকর্মী, হাউসকিপিংয়ের কাজ করেন, যারা আমিষাশী এবং ধূমপায়ী নন, তাদের ‘সেরো-পজিটিভিটি’ বেশি।

[আরও পড়ুন: টিকাকরণ শুরুর দিনও করোনাজয়ীদের ভ্যাকসিন দেওয়া নিয়ে বিভ্রান্তি! সন্দিহান চিকিৎসকরাই]

সিএসআইআর-এর তরফে এই সমীক্ষার উদ্যোগ নিয়েছিল ইনস্টিটিউট অফ জেনোমিক্স অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটিভ বায়োলজি (আইজিআইবি)। তারা জানিয়েছে, এই সমীক্ষায় ব্লাড সেরামের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল ১০,৪২৭ জনের। পাশাপাশি হয়েছিল স্বাস্থ্যগত আরও নানা ধরনের পরীক্ষা। এর মধ্যে ১,০৫৮ জনের দেহে কোভিডের (COVID-19) অ্যান্টিবডি ছিল। এর পর আবার তিন মাস পর এদের মধ্যে ৩৪৬ জন ‘সেরো-পজিটিভ’ মানুষের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তখন দেখা যায়, এদের কোভিডের বিরুদ্ধে অ্যান্টিবডির হার বাড়লেও প্লাজমার কার্যকলাপ কমছে, যা কোভিড ভাইরাসকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে। ছ’মাসের মাথায় ৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তখন দেখা যায়, অ্যান্টিবডি কমছে, তবে প্লাজমা অ্যাক্টিভিটি স্থিতিশীল। এই তথ্যপ্রমাণ বিশ্লেষণ করেই সমীক্ষকরা সিদ্ধান্তে পৌঁছন যে, ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে কোভিড সংক্রমণের ঝুঁকি কম। এই মতের সমর্থনে সমীক্ষকরা ফ্রান্স, ইতালি, নিউ ইয়র্ক ও চিনের তরফে তথ্য প্রমাণও পেশ করেছেন। তাতেও দেখা গিয়েছে ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি আপাতভাবে কম।

[আরও পড়ুন: কারা নিতে পারবেন কোভ্যাক্সিন? বিতর্কের মাঝেই স্পষ্ট করল ভারত বায়োটেক]

Advertisement
Next