Advertisement

মাত্র ৪ দিনেই করোনাকে বাগে আনতে সক্ষম! নতুন ওষুধ তৈরি করে দাবি গুজরাটের সংস্থার

02:31 PM Apr 19, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার (Corona Virus) দ্বিতীয় টেউয়ে শঙ্কিত গোটা বিশ্ব। প্রতিদিন লাফিয়ে বাড়ছে করোনা (COVID-19) আক্রান্তের সংখ্যা। মহারাষ্ট্রে চলছে কোভিড কারফিউ। রাজস্থানে দুই সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা হয়েছে। রাজধানী দিল্লিতেও এক সপ্তাহের কারফিউ ঘোষণা করা হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে করোনা পরিস্থিতির কারণে স্কুলগুলির গরমের ছুটি এগিয়ে আনা হয়েছে। মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে পরে ঘোষণা করা হবে। এমন পরিস্থিতিতে করোনা চিকিৎসায় আশার আলো দেখাচ্ছে আয়ুধ অ্যাডভান্স (AAYUDH Advance)। হিউম্যান ট্রায়ালে দারুণ কাজ দিয়েছে আয়ুর্বেদের এই ওষুধ। মাত্র চারদিনেই করোনা ভাইরাসকে বাগে আনতে সক্ষম ওষুধটি। এমনই দাবি করা হয়েছে কনটেম্পোরারি ক্লিনিকাল ট্রায়ালস কমিউনিকেশন নামের একটি জার্নালে। সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ে প্রকাশিত হয়েছে খবরটি।

Advertisement

শোনা গিয়েছে, মাত্র চারদিনে কোভিড ১৯ ভাইরাস দমনে অনেকটাই কাজে দিয়েছে আয়ুধ অ্যাডভান্স। জার্নালে দাবি করা হয়েছে, ইতিমধ্যেই দু’টি হিউম্যান ট্রায়ালে সফলভাবে উত্তীর্ণ হয়েছে আয়ুর্বেদের এই ওষুধ। প্রথম ট্রায়াল করা হয়েছিল ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে আহমেদাবাদের এসএমটি এনএইচএল মিউনিসিপাল মেডিক্যাল কলেজে। দ্বিতীয় পরীক্ষাটি ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে আহমেদাবাদেরই জিএমইআরএস মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে করা হয়েছিল। প্রথমে মৃদু উপসর্গযুক্ত রোগীদের উপর পরীক্ষা করা হয়েছিল। তাতে দ্রুত সুফল মেলে। বেশি অসুস্থ রোগীদের উপরও পরীক্ষা করা হয়। এবং তাতেও বেশ সুফল মেলে বলে দাবি। মাত্র চারদিনের মধ্যেই নাকি জ্বর, সর্দি এবং কফের পরিমাণ অনেকটাই কমে যায়। ফলে শ্বাসকষ্টের সমস্যাও কমে যায় বলে জার্নালে দাবি করা হয়েছে। শোনা গিয়েছে, একাধিক রোগী নাকি খুব তাড়াতাড়ি করোনা নেগেটিভও হয়ে গিয়েছে। অবশ্য এর সঙ্গে স্ট্যান্ডার্ড কেয়ারও বজায় ছিল বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: প্রতি বছরই নিতে হবে করোনার টিকা, দাবি করলেন ফাইজারের সিইও]

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক সরকারি ওয়েবসাইটেও (https://www.ncbi.nlm.nih.gov/pmc/articles/PMC7948525/)  এই গবেষণার বিষয়ে বিস্তারিত লেখা হয়েছে। জার্নালে দাবি করা হয়েছে, প্রায় ২১টি ঔষধি গুণের গাছের নির্যাস থেকে আয়ুধ অ্যাডভান্স ওষুধটি তৈরি করেছে গুজরাটের শুক্লা আশারলমপেক্স নামের এক কোম্পানি। কোম্পানির ম্যানেজিং ডিরেক্টর দীপ শুক্লা দাবি করেন, ভ্যাকসিনের থেকে আলাদা আয়ুধ অ্যাডভান্স। ভ্যাকসিন শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি করে। আর আয়ুধ অ্যাডভান্স স্ট্যান্ডার্ড ট্রিটমেন্ট চলাকালীনই করোনার প্রভাবকে প্রশমিত করতে সাহায্য করে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়াই।

[আরও পড়ুন: দিনে ২ হাজারের বেশি মৃত্যু হবে করোনায়! মার্কিন জার্নালের দাবি ঘিরে বাড়ছে আতঙ্ক]

 

Advertisement
Next