২০ চিকিৎসক, ১০ অ্যানাস্থেসিস্ট, ১৮ ঘণ্টার অস্ত্রোপচারে সফল দেশের প্রথম আস্ত হাত প্রতিস্থাপন

02:17 PM Sep 21, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের এমন অস্ত্রোপচার প্রথম, বিশ্বে তৃতীয়। এর আগে মেক্সিকো ও ফ্রান্সে একটি করে এমন অস্ত্রোপচার হয়েছে। ভয়ংকর দুর্ঘটনায় দুই হাত হারিয়েছিলেন কেরলের (Kerala) বাসিন্দা এক প্রৌঢ়। সম্প্রতি তাঁর শরীরে একটি আস্ত হাত প্রতিস্থাপন করলেন চিকিৎসকরা। বিরলের মধ্যে বিরল এই অস্ত্রোপচার করেন একসঙ্গে ২০ জন শল্যচিকিৎসক ও ১০ জন অ্যানাস্থেসিস্ট। প্রায় ১৮ ঘণ্টা ধরে চলে অস্ত্রোপচার।

Advertisement

যুবকের নাম অমরেশ। ২০১৭ সালে বিদ্যুতের তার সারাতে গিয়ে ভয়ংকর দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন তিনি। তাতেই দুই হাত খোওয়া যায়। সেই সময় অমরেশকে সুস্থ করে তুলতে ডান হাত কনুইয়ের কাছ থেকে ও বাম হাত কাঁধ থেকে বাদ দিতে বাধ্য হন চিকিৎসকেরা। এরপর জীবনের মূল প্রবাহে ফেরার আশায় হাত প্রতিস্থাপনের আবেদন জানান অমরেশ।

[আরও পড়ুন: খাবার ডেলিভারি দিতে এসে তরুণীকে জাপটে ধরে চুমু জোম্যাটো কর্মীর, কী বলল সংস্থা?]

কোচির অমৃতা হাসপাতালের চিকিৎসকেরা জানান, সম্প্রতি এক দাতার খোঁজ মেলে। কিছু দিন আগে তিরুঅনন্তপুরমে (Thiruvananthapuram) একটি দুর্ঘটনা ঘটে। তাতে প্রাণ হারান বছর ৫৪-র বিনোদ। মৃতের বাড়ির লোক বিনোদের অঙ্গ দান করতে রাজি হন। এরপরেই বিনোদের দেহ থেকে হাত নিয়ে তা অমরেশের দেহে বসানোর প্রস্তুতি শুরু করেন অমৃতা হাসপাতালের চিকিৎসকেরা। শেষ পর্যন্ত অমরেশের অস্ত্রোপচারে ২০ জন শল্যচিকিৎসক ও ১০ জন অ্যানাস্থেসিস্ট অংশ নেন। কঠিন অস্ত্রোপচারটি প্রায় ১৮ ঘণ্টা ধরে চলে। 

Advertising
Advertising

বিরল অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে বলে জানিয়েছে কোচির হাসপাতালটি। যে হাতটি কনুই থেকে বাদ যায়, সেটি জুড়তে সময় লাগেনি। কাঁধ থেকে বাদ যাওয়া হাতের জায়গায় নতুন হাত বসানো ছিল আসল চ্যালেঞ্জ। দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল অমরেশের হাতের স্নায়ুও। তবে শেষ পর্যন্ত চিকিৎসকদের চেষ্টা সফল হয়েছে। নতুন হাত পেয়েছেন অমরেশ।

[আরও পড়ুন: ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’য় হিজাব পরিহিতা নাবালিকার সঙ্গে হাঁটলেন রাহুল, ‘তোষণের রাজনীতি’, কটাক্ষ বিজেপির]

তবে নতুন হাতকে নিজের করে তুলতে, তা সচল করতে, দীর্ঘদিন বেশ কিছু নিয়ম মানতে হবে অমরেশকে। টানা ১৮ মাস রোজ পাঁচ ঘণ্টা ফিজিওথেরাপি করাতে হবে। যে কোনও অসুবিধায় যোগাযোগ করতে হবে চিকিৎসকদের সঙ্গে। সব ঠিক থাকলে নতুন হাত দিয়ে ভাত খাওয়া, দাঁত মাজার মতো কাজ করতে পারবেন অমরেশ।স্বপ্ন দেখছেন তিনি!

Advertisement
Next