Advertisement

বাড়ি বদলের সময়ে আসবাবের ভার বইতে পারছেন না? রইল সহজ কিছু টিপস

05:23 PM Apr 18, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সুকুমার সরকার, ঢাকা: নিজের ভিটে না থাকলে ঝঞ্ঝাট অনেক। সদা সর্বদা নিরাপত্তাহীনতা, স্থানান্তরের চিন্তা, জিনিসপত্র নিয়ে টানাহ্যাঁচড়ার ঝামেলা, আরও অনেক কিছুই। বাড়ি বদলের সময় বিশেষ করে আসবাবপত্র (Furnitures) বয়ে নিয়ে যাওয়া নিয়ে চিন্তায় থাকেন অনেকে। সেসবের ওজন, যাতায়াতের পথে কিছু ক্ষতি হওয়া – আশঙ্কা থাকে অনেক। তবে আজকালকার যুগে এসব চিন্তা কিন্তু উড়িয়ে দেওয়া যায় এক ফুঁ-য়ে। কারণ, ইদানিং এমন কিছু আসবাব বাজারে পাওয়া যায়, যার ভার একেবারেই নগণ্য। অন্যান্য জিনিসের সঙ্গে অনায়াসে প্যাকিং করে চালান করে দেওয়া যায় গাড়িতে। ভাবছেন তো, এমনটা হয় নাকি? একটা গোটা আলমারি কি এভাবে বয়ে নেওয়া সম্ভব? সত্যিই সম্ভব – রেডি টু অ্যাসেম্বল আসবারের দৌলতে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

 

পোশাকি নাম নক ডাউন। এই পদ্ধতিতে তৈরি করা আসবাবপত্রের বিভিন্ন অংশ খুব সহজে খুলে ফেলা যায় এবং সহজেই তা জোড়া লাগিয়ে আবার আসবাবটি দাঁড় করানো যায়। স্থানান্তরের সময় কোনও ক্ষতি হয় না। নক ডাউন আসবাবপত্রের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পরিচিত খাট। বহু আগে থেকেই খাটের প্রতিটি অংশ খুলে স্থানান্তর করা হত। এগুলোই ‘রেডি টু অ্যাসেম্বল ফার্নিচার’ (Ready to assembly) বলা হয়।

[আরও পড়ুন: বাড়ির পুরনো কম্পিউটার বা ইলেক্ট্রিক তার থেকেই আয় করতে পারবেন, কীভাবে জানেন?]

ইদানিং বাজারে এ ধরনের যেসব আসবাব পাওয়া যায়, তার প্রতিটি অংশ আলাদাভাবে প্যাকেট করাই থাকে। প্রয়োজনীয় আসবাবটি কিনে এনে বাড়িতে জোড়া লাগিয়ে নিলেই দিব্যি ব্যবহার করা যায়। আবার দরকারে খুলে আলাদা আলাদা অংশ প্যাকেটে ভরে সহজে স্থানান্তরও করা যায়। এগুলোর মূল বৈশিষ্ট্য হল, পেরেকের বদলে এতে স্ক্রু লাগানো থাকে। তাতেই খোলা এবং জুড়ে দেওয়ার কাজ খুব সহজ হয়। আর গোটা আসবাবের অংশগুলো খুলে ফেলায় তার ভারও অনেক কম। একবার এই পদ্ধতিটি শিখে নিলে নিজেরাই আসবাবগুলিকে ব্যবহারের যোগ্য করে তোলা যায়।

[আরও পড়ুন: ড্রয়িং রুমের কোথায় আলমারি-টেলিভিশন রাখলে ফিরবে ভাগ্য? কী বলছেন বাস্তু বিশেষজ্ঞরা?]

আসবাবের যে কোনও বড় শোরুমেই পাওয়া যায় নক ডাউন আসবাব। অথবা স্থানীয় এলাকার কাঠের দোকান থেকে একেবারে নিজস্ব নকশায় নক ডাউন আসবাব বানিয়ে নেওয়া যায়। খাট, চেয়ার, টেবিল, সোফা, ডিভান, আলমারি-সহ বাড়িতে যে কোনও নক ডাউন আসবার ব্যবহার করা যায়। তবে সতর্কতাও কিছুটা দরকার বইকী। নক ডাউন আসবাবের জন্য সেরা ব্র্যান্ডটাই বেছে নিন। তাতে যন্ত্রপাতির মান বজায় থাকবে ভবিষ্যতের জন্য। এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা জানান, এসব আসবাবও যত কম খোলা যায়, ততই ভাল।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next