যৌন চাহিদা মেটাতে গিয়ে বিপদ, মলদ্বারে সাড়ে ৭ ইঞ্চি জলের বোতল ঢোকালেন প্রৌঢ়

08:32 PM Aug 17, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পেটে অসহ্য যন্ত্রণা। শুয়ে থাকলেও কষ্ট হচ্ছে খুব। চোখের সামনে স্বামীকে যন্ত্রণায় কাতরাতে দেখে নিজেকে সামলে রাখতে পারেননি মহিলা। তড়িঘড়ি চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান। সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট হাতে পাওয়া মাত্রই অবাক হয়ে যান প্রায় সকলেই। কারণ, রিপোর্টে দেখা যায় পায়ুদ্বারে প্রায় সাড়ে সাত ইঞ্চি ঢুকে রয়েছে জলের বোতল।

Advertisement

জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তি ইরানের বাসিন্দা। ইমাম খোমেইনি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। পেটে যন্ত্রণা, মলত্যাগ বন্ধ হয়ে যায় ওই ব্যক্তির। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ামাত্রই সিটি স্ক্যান করা হয়। তাতেই ধরা পড়ে ব্যক্তির মলদ্বারে ঢুকে রয়েছে সাড়ে সাত ইঞ্চির জলের বোতল। তার ফলে মলত্যাগ বন্ধ হয়ে গিয়েছে। পেটে যন্ত্রণা শুরু হয়েছে। ওই ব্যক্তি অবশ্য সমস্যার কথা বুঝতে পেরেছিলেন। তবে তিনি লজ্জায় কাউকেই কিছু বলতে পারছিলেন না। এমনকী স্ত্রীকেও সমস্যার কথা বলতে পারেননি। তাই একাই যন্ত্রণায় ছটফট করছিলেন।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: টেট পাশ না করেও শিক্ষকতা, অনুব্রতকন্যার বিরুদ্ধে হাই কোর্টে মামলা আইনজীবীর]

চিকিৎসকরা জানান, মলদ্বারে যেভাবে জলের বোতলটি ঢুকে গিয়েছিল তা বের করা বেশ কঠিন ছিল। কারণ, সামান্য অসাবধানতায় রক্তারক্তি কাণ্ড ঘটতে পারে। তাই ওই জলের বোতলটি পায়ুদ্বার থেকে বের করার ক্ষেত্রে বেশ কিছুটা বেগ পেতে হয় তাঁদের। তা সত্ত্বেও রক্তপাতহীনভাবে ওই বোতলটি বের করা সম্ভব হয়েছে। তবে বেশ কয়েকদিন হাসপাতালে ভরতি থাকতে হয়েছে তাঁকে। এরপর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান ওই ব্যক্তি। আপাতত সুস্থ রয়েছেন তিনি।

তবে পায়ুদ্বারে কোনও বস্তু ঢুকিয়ে দেওয়ার মতো ঘটনা আগেও ঘটেছে। চিকিৎসকদের দাবি, ওই ব্যক্তি মানসিক অবসাদে ভুগছেন। তাঁর অতৃপ্ত যৌনকাঙ্ক্ষার ফলে ওই ব্যক্তি মলদ্বারে নিজেই জলের বোতল ঢুকিয়েছিলেন বলেই মনে করা হচ্ছে। ওই ব্যক্তির কাউন্সেলিং হওয়া প্রয়োজন বলেও মনে করা হচ্ছে।  

[আরও পড়ুন: অনুব্রত মণ্ডল ও আত্মীয়দের অ্যাকাউন্টে টাকার পাহাড়, বাজেয়াপ্ত করল CBI]

Advertisement
Next