Advertisement

প্যানিক বোতাম টিপলেই বিপদগ্রস্তের ‘লোকেশন’যাবে অন্য মোবাইলে, নয়া অ্যাপ আনল বিধাননগর পুলিশ

09:11 PM Oct 01, 2021 |

স্টাফ রিপোর্টার, বিধাননগর: রাস্তাঘাটে বিপদে পড়লে আপৎকালীন পরিস্থিতিতে নামমাত্র সময় না নিয়ে অন্য কাউকে সে খবর পৌঁছে দিতে নয়া অ্যাপ আনলো বিধাননগর পুলিশ (Bidhannagar police)। আগে ছিল ‘বিপুল’ নামের একটি অ্যাপ। সেটিকে পালটে আরও আধুনিক রূপে আনা হল ‘আস্থা’।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

 

কেউ বিপদে পড়লে বা তার আভাস পেলে অ্যাপের ‘প্যানিক’ (Panic) বোতামে চাপ দেওয়া মাত্রই কাউকে নিজের অবস্থান ও মেসেজ পাঠানো যাবে। বিধাননগরের পুলিশ জানিয়েছে, বোতাম টিপলেই অ্যাপে সেভ করা দুই প্রিয়জনের নম্বর ও বিধাননগর পুলিসের কন্ট্রোলরুমে বিপদগ্রস্তের লাইভ লোকেশন ফোন মারফত পৌঁছে যাবে। এবং ঘটনাস্থলে দ্রুত পৌঁছবে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: এবার ইন্টারনেট ছাড়াও স্মার্টফোনের মাধ্যমে সহজেই টাকা পাঠাতে পারবেন, জানেন কীভাবে?]

শুক্রবার বিশ্ববাংলা কনভেনশন সেন্টারে (Biswa Bangla Convention Centre) বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেট ও পুজো কমিটির একটি বৈঠক হয়। সেখানে নতুন অ্যাপটির উদ্বোধন হয়। পুলিশ কমিশনার সুপ্রতিম সরকার জানিয়েছেন, গুগল প্লে স্টোর থেকে ‘আস্থা’ অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে। সেটি ইনস্টল করে তাতে দুজনের ফোন নম্বর সেভ করে রাখতে পারবেন বাসিন্দারা। প্যানিক বোতামে চাপ দিলে সেই দু’টি নম্বরেই মেসেজ যাবে।

[আরও পড়ুন: বিকট শব্দে ফাটল চার্জার, OnePlus-এর জনপ্রিয় স্মার্টফোন কিনে বিপাকে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়র]

এদিন বিধাননগর পুলিশের তরফে পুজোর গাইড ম্যাপ প্রকাশ হয়। পুজোর সময় কমিশনারেট এলাকার কোথাও কোনও বিপদে বা অসুবিধার সম্মুখীন হলে ২৩৩৫-৮৭৮৮ নম্বরে পুলিস কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগ করতে পারবেন দর্শনার্থীরা। এদিনের সভায় পুজোর পর বিসর্জনের নির্ঘণ্ট বলে দিয়েছে পুলিশ। ১৫ থেকে ১৮ অক্টোবরের মধ্যেই সমস্ত প্রতিমা বিসর্জন সেরে ফেলার নির্দেশ।

Advertisement
Next