চার মাসের মধ্যেই দেশে চালু হতে পারে 5G পরিষেবা, জানালেন টেলিকম মন্ত্রী

03:52 PM Apr 30, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাতাসে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে মাঝে মাঝেই যে বাজারে আসতে চলেছে নতুন মোবাইল প্রযুক্তি। আরও দ্রুত নেটওয়ার্ক পেতে আসছে ফাইভ-জি। বছর দেড়েক ধরেই তা শোনা যাচ্ছে। তবে দিনক্ষণ বোঝা গেল এতদিনে। আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যেই দেশে ফাইভ জি পরিষেবা চালু করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে কেন্দ্র। শুক্রবার কেন্দ্রীয় টেলিকম মন্ত্রী জানালেন, জুনেই শুরু হচ্ছে নিলাম। স্পেকট্রাম (5G spectrum) বণ্টনের পর্ব মিটলেই শুরু হবে বাকি কাজ।

Advertisement

সূত্রের দাবি প্রাথমিকভাবে কলকাতা, মুম্বই, দিল্লি, গুরুগ্রাম, পুণে, বেঙ্গালুরু, চণ্ডীগড়, চেন্নাই, লখনউ, হায়দরাবাদ, জামনগর, আহমেদাবাদ, গান্ধীনগর- এই ১৩টি শহরে চালু হচ্ছে ৫জি। ইতিমধ্যেই ওই শহরগুলিতে স্থাপিত হয়েছে ট্রায়াল সাইট। জিও, এয়ারটেল (Airtel) ও ভোডাফোন-আইডিয়ার (Vodafone-Idea) মতো টেলিকম সংস্থাগুলি ওই সাইটগুলি থেকে ৫জি পরিষেবা চালাবে।গত ৩ বছর ধরে ৮টি এজেন্সি লাগাতার কাজ করে চলেছে ৫ জি পরিষেবা কার্যকর করার ব্যাপারে। তাদের মধ্যে অন্যতম আইআইটি দিল্লি, আইআইটি বম্বে, আইআইটি কানপুরের মতো প্রতিষ্ঠান। কিন্তু সেই টার্গেট পূরণ হবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: মালিক হয়েও পার পেলেন না, এলন মাস্কের টুইটেই শর্ত চাপাল টুইটার!]

টেলিকম মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব জানিয়েছেন, আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যেই দেশে ফাইভ জি পরিষেবা চালু হতে চলেছে। সমস্ত প্রক্রিয়াই পাইপলাইনে রয়েছে। স্পেকট্রাম নিলাম প্রক্রিয়া মিটলেই বাকি কাজ দ্রুতগতিতে মিটবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। তবে অশ্বিনী বৈষ্ণবের ঠিক করে দেওয়া এই ডেডলাইনের মধ্যে স্পেকট্রাম নিলাম কতটা সম্ভব তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে ওয়াকিবহাল মহলে। কারণ যে দামে টেলিকম মন্ত্রক 5G স্পেকট্রাম বিক্রি করতে চাইছে, সেটা টেলিকম সংস্থাগুলির সাধ্যের বাইরে।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ৯ স্ত্রীকে খুশি করতে প্রতি মাসে ‘সেক্স রুটিন’! মডেলের কীর্তিতে হতবাক নেটদুনিয়া]

৫জি এলে গ্রাহকদের পরিষেবায় কতটা পরিবর্তন আসবে? মনে করা হচ্ছে, ডেটা ডাউনলোডের গতি বাড়বে ১০ গুণ! স্পেকট্রাম এফিশিয়েন্সি হবে ৩ গুণ বেশি। কিন্তু সেজন্য গাঁট থেকে খসবে মোটা অঙ্কের টাকা। দেশের টেলিকম সংস্থাগুলির সংগঠনের দাবি, সরকার স্পেকট্রামের যে দাম প্রথমে ঠিক করেছিল, সেটা তাঁদের সাধ্যের বাইরে। প্রাথমিকভাবে স্পেকট্রামের দাম ৯০ শতাংশ কমানোর দাবি জানিয়েছিল সংস্থাগুলি। যদিও সরকার তা ৩০-৩৫ শতাংশ কমানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। কিন্তু তাতেও আদৌ বেসরকারি সংস্থাগুলি 5G স্পেকট্রাম কিনতে আগ্রহী হবে কিনা তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

Advertisement
Next