হ্যাকিং করতে পারেন? কলকাতা পুলিশের প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে জিতুন দেড় লক্ষ টাকা!

08:34 PM Jul 19, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হ্যাকিংয়ে সিদ্ধহস্ত? এই ‘শিল্পে’ অন্যদের পিছনে ফেলে দিতে পারেন? তাহলে আপনার জন্য দারুণ সুখবর। হ্যাকিংয়ে (Hacking) সেরা হতে পারলেই জিতে যাবেন দেড় লক্ষ টাকা!

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

ভাবছেন তো! এমন লোভনীয় প্রস্তাব কে দিচ্ছে? অন্য কেউ নয়, খোদ কলকাতা পুলিশ (Kolkata Police) আয়োজন করছে হ্যাকিং প্রতিযোগিতার। তাও আবার খাস কলকাতায়। রাজ্যে এই প্রথমবার এত বড় করে অফলাইনে হ্যাকিং প্রতিযোগিতা আয়োজিত হচ্ছে। আগামী ২৯ জুলাই নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে হবে হ্যাকাথন ২০২২। উদ্বোধন করবেন কলকাতার নগরপাল বিনীত কুমার গোয়েল।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ১১ ইঞ্চি লম্বা ছুরি হাতে ভারতে অনুপ্রবেশ পাক যুবকের, উদ্দেশ্য নূপুর শর্মাকে হত্যা! তারপর…]

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে প্রতিযোগিতার খুঁটিনাটি জানিয়েছে কলকাতা পুলিশ। জানানো হয়েছে, প্রথম দশজন জিতবেন নগদ পুরস্কার। বিজয়ীরা পাবেন নগদ দেড় লক্ষ টাকা। দ্বিতীয় পুরস্কার ১ লক্ষ টাকা। তৃতীয় স্থানাধিকারীরা পাবেন ৭৫ হাজার টাকা পুরস্কার। এর পাশাপাশি সাতজনকে সান্ত্বনা পুরস্কার হিসেবেও নগদ দেওয়া হবে। এছাড়া প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া প্রত্যেকের হাতে তুলে দেওয়া হবে সার্টিফিকেট।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

তবে এখানেই শেষ নয়, এঁদের মধ্যে যাঁরা নির্বাচিত হবেন, তাঁরা কলকাতা পুলিশের সাইবার ল্যাবে ইন্টার্নশিপের সুযোগও পেতে পারেন। ২৫ জুলাই প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার শেষ দিন। অনলাইনেই করা যাবে রেজিস্ট্রেশন। এর জন্য আলাদা একটি ওয়েবসাইটের কথা জানিয়েছে কলকাতা পুলিশ। সেখানে গিয়ে ৩০০ টাকার বিনিময়ে নিজের নাম নথিভুক্ত করতে হবে। পেমেন্টও করতে হবে অনলাইনেই। ২৯ জুলাই সকাল ৯টায় নেতাজি ইন্ডোরে শুরু হ্যাকাথন। প্রতিযোগীদের নিজের ল্যাপটপ ও অন্যান্য সরঞ্জাম আনতে হবে। পাশাপাশি ইভেন্ট শুরুর আগেই ইভেন্টের অফিসিয়াল পেজে গিয়ে নিজস্ব অ্যাকাউন্ট তৈরি করে ফেলতে হবে। দলে ভাগ করে হবে খেলা। প্রতিটি দল একটি করে অ্যাকাউন্ট বানাবে। ফল জানার জন্য বেশি অপেক্ষা করতে হবে না। সেই দিনই ঘোষিত হবে ফলাফল। হাতে পেয়ে যাবেন সার্টিফিকেট। তাহলে আর দেরি কেন? হ্যাকিং যদি হয় বাঁয়ে হাত কা খেল, তাহলে চটপট রেজিস্টার করে ফেলুন।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানে বোরখা পরা নাবালিকাকে প্রকাশ্যে যৌন হেনস্তা, ভাইরাল CCTV ফুটেজ]

Advertisement
Next