মানুষের মস্তিষ্কে চিপ বসিয়ে অন্ধত্ব থেকে পক্ষাঘাত সারাবেন, বিস্ফোরক দাবি মাস্কের

04:58 PM Dec 01, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টেসলা ও স্পেসএক্সের সিইও এলন মাস্ক (Elon Musk) সম্প্রতি খবরের শিরোনামে রয়েছেন টুইটার কেনা ও তারপর থেকে লাগাতার কর্মী ছাঁটাইয়ের কারণে। কিন্তু এবার তিনি এক আশ্চর্য দাবি করে সকলে চমকে দিয়েছেন। তাঁর দাবি, আর ৬ মাসের মধ্যেই নতুন চমক দিতে চলেছেন তিনি। কী সেই চমক? মাস্কের দাবি, তাঁর সংস্থা নিউরোলিঙ্ক মানুষের মস্তিষ্কে কয়েনের আকারের চিপ প্রতিস্থাপন করে দেবেন। মূলত অসুস্থ রোগীদের মস্তিষ্কেই এই প্রতিস্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে মানব মস্তিষ্ককে কম্পিউটারের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া যাবে। মাস্কের এমন দাবি ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

তবে এই ধরনের প্রতিস্থাপনের দাবি এবছরই প্রথম করল না মাস্কের সংস্থা। ২০২১ সালেই তারা জানিয়েছিল, তারা দুটি বাঁদরের মস্তিষ্কে এই চিপ প্রতিস্থাপন করে পরীক্ষা চালিয়েছে। এমনকী এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও-ও শেয়ার করা হয়।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ডিসেম্বরের শুরুতেই কার্যত উধাও শীত, কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে বাড়ল তাপমাত্রা]

বুধবার সন্ধেয় নিউরোলিঙ্কের একটি অনুষ্ঠানে এই প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখেন মাস্ক। তিনি জানিয়ে দেন, এই চিপ লাগানোর পিছনে প্রাথমিক লক্ষ্যই হল, দৃষ্টিহীন ও পক্ষাঘাতগ্রস্তদের চিকিৎসা করা। জন্মান্ধদেরও এর সাহায্যে দৃষ্টি ফিরিয়ে দেওয়া যাবে বলে দাবি তাঁর। সুস্থ করে তোলা যাবে পক্ষাঘাতে ভুগতে মানুষদেরও। আগামী দিন যে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার হতে চলেছে, সেকথাও বলেন মাস্ক।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে স্থাপিত ‘নিউরোলিঙ্ক’ নামের সংস্থাটি মানুষের মস্তিষ্কে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (Artificial Intelligence) প্রয়োগ নিয়ে কাজ করছে। প্রাথমিক ভাবে বাঁদরের মস্তিষ্ক নিয়ে গবেষণা শুরু করে তারা। গত বছরই জানা যায়, বাঁদরটির মাথার ভিতরে ওই চিপ বসিয়ে সরু তার দিয়ে মস্তিষ্কের সঙ্গে সেটির যোগসূত্র তৈরি করা হচ্ছে। তার ফলেই বাঁদরটি নিজের মাথাকে কাজে লাগিয়ে দিব্যি ভিডিও গেম খেলতে পারে! একটি বাঁদর অন্য একটি বাঁদরের সঙ্গে কীভাবে মনে মনে যোগাযোগ তৈরি করতে পারে, সেই দিকটি খতিয়ে দেখতেই মূলত সেটির মস্তিষ্কে ওই চিপ বসানো হয়েছে বলে দাবি করা হয়।

[আরও পড়ুন: দুর্ঘটনায় প্রৌঢ়ের মৃত্যুর প্রতিবাদে রাজ্য সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভকারীর গলা টিপল পুলিশ! উত্তাল বড়ঞা]

Advertisement
Next