Advertisement

দিঘা-শংকরপুর-তাজপুর ভ্রমণ এবার মাত্র ৩৪০ টাকায়! বর্ষশেষে দুর্দান্ত উপহার সরকারের

07:23 PM Dec 26, 2020 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বড়দিনে রাজ্যবাসীর জন্য বড় উপহার ঘোষণা করল সরকার। একেবারে জলের দরে এবার ঘুরতে পারবেন দিঘা ও শংকরপুর। সময় কাটাতে পারবেন তাজপুর ও মন্দারমণির নিরিবিলি সুন্দর সমুদ্র সৈকতেও। এককথায় বছরশেষে পর্যটকদের মন আনন্দে ভরিতে দিয়ে অভাবনীয় উদ্যোগ নিল শংকরপুর উন্নয়ন সংস্থা। ট্যুরের খরচ? মাত্র ৩৪০ টাকা! বিশ্বাস না হলে আবার পড়ুন।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

শুক্রবার অর্থাৎ বড়দিনেই ১৪ আসনযুক্ত একটি বাস দিয়ে এই পরিষেবা চালু হয়েছে। যা আপনাকে বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে (Tourist spots) নিয়ে যাবে। সেটি মিস হয়ে থাকলেও চিন্তা নেই। কারণ ২৮ ডিসেম্বর থেকে আরও একটি বাস চলবে। ধীরে ধীরে বাসের সংখ্যা বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের। সেই সঙ্গে আগামিদিনে আরও কয়েকটি পর্যটন কেন্দ্রে এই পরিষেবা চালু করারও ইচ্ছা তাদের। আসলে, করোনা কালে চরম ক্ষতির মুখে পড়েছিল রাজ্যের পর্যটন শিল্প। কিন্তু আনলক পর্বে আবার ঘুরে দাঁড়াচ্ছে এই ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা। ঢেলে সাজানো হয়েছে দিঘা, মন্দারমণি-সহ বেশ কিছু জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্রকে। আর এবার বছর শেষে অভূতপূর্ব ভ্রমণের সুযোগ পাচ্ছেন পর্যটকরা। চলুন জেনে নেওয়া যাক, এই সফরের যাবতীয় খুঁটিনাটি।

[আরও পড়ুন: পর্যটকদের জন্য সুখবর, বড়দিনেই ফের দার্জিলিংয়ে চালু হচ্ছে টয়ট্রেন পরিষেবা]

প্রতিদিন সকাল ৮.৩০টা থেকে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত পর্যটকদের নিয়ে ঘুরবে এই লাক্সারি বাসটি। দিঘার (Digha) অপরাজিতা কটেজ থেকে ছাড়বে বাস। আধ ঘণ্টায় পৌঁছে যাবে শংকরপুর। সেখানে মিনিট তিরিশ থেকে ব্রেকফাস্ট সেরে সোজা তাজপুর। সেখান থেকে দাদনপত্রবাড়ে ও সিলামপুর। স্নান ও দুপুরের খাওয়া-দাওয়ার পালা মিটিয়ে বাস রওনা দেবে অমরাবতী পার্কের উদ্দেশে। সেখানে খানিকক্ষণ সময় কাটিয়ে গন্তব্য ওসিয়ানা বিচ ও তারপর ঢেউসাগর। ক্রিসমাস থেকেই আবার ঢেউসাগরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজিত হচ্ছে। এরপর বিকেল ৪.৩৫ নাগাদ ঢেউসাগর থেকে দিঘা বিজ্ঞান কেন্দ্রের দিকে রওনা দেবে বাস। সেখান থেকেই ৬টা নাগাদ অপরাজিতা কটেজের সামনে আপনাকে নামিয়ে দেবে বাসটি।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

এবার প্রশ্ন হল কীভাবে টিকিট কাটবেন? শোনা যাচ্ছে আপাতত অপরাজিত কটেজেই টিকিট কাউন্টারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পরে অনলাইনেও পরিষেবা মিলতে পারে। তবে সফর নিশ্চিত করতে ভ্রমণের আগের দিনই টিকিট কেটে রাখবেন। তাহলে আর দেরি কেন? বছরশেষের আনন্দে মাততে চটপট প্ল্যান করে ব্যাগ গুছিয়ে বেরিয়ে পড়ুন।

[আরও পড়ুন: শীতের দেখা মিলতেই পরিযায়ী পাখি হাজির আহিরণে, ভিড় জমিয়েছেন পাখিপ্রেমীরাও]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next