Advertisement

উৎসবের মরশুমে পর্যটকদের জন্য সুখবর, দার্জিলিংয়ে শুরু হচ্ছে ‘ঘুম ফেস্টিভ্যাল’

01:35 PM Nov 13, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাঙালির পাহাড় ঘোরা মানেই প্রথমে যে নামটি আসে তা হল দার্জিলিং (Darjeeling)। গরমের ছুটি পড়লেই দার্জিলিংয়ে ছুটে যাওয়া, পুজোর ছুটিতেও কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখার জন্য বাঙালি হইহই করতে করতে পৌঁছে যান শৈলশহরে। কিংবা হঠাৎ করে শহরের বুকে মন খারাপ হলে,মন ভালর ঠিকানা কেয়ার অফ দার্জিলিং। আর সেই দার্জিলিংয়ের ম্যালে পা রাখার আগেই যদি পেয়ে যান নতুন উৎসবের স্বাদ! তাহলে?

Advertisement

ব্যাপারটা একটু খোলসা করে বলা যাক। আগামিকাল অর্থাৎ ১৩ নভেম্বর থেকে দার্জিলিংয়ে শুরু হতে চলেছে নতুন উৎসব ‘ঘুম ফেস্টিভ্য়াল’। যা চলবে ডিসেম্বর মাসের ৫ তারিখ পর্যন্ত। ২৩ দিন ধরে চলা এই ফেস্টিভ্যালে পর্যটকদের চোখের সামনে উঠে আসবে শৈলশহরের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য।

[আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্ক উপেক্ষা করেই দুবাই-মালদ্বীপে ভিড় জমাচ্ছেন ভারতীয় পর্যটকরা]

ঘুম উৎসবে থাকবে লোকগান, স্থানীয় শিল্পীদের নৃত্য পরিবেশন। এ ছাড়া পর্যটকদের জন্য প্রতিদিন সকালে থাকবে হেরিটেজ ওয়াক ও ট্র্যাকাথন। এছাড়াও স্থানীয় হস্তশিল্পকে নিয়ে বিশেষ প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হবে। দার্জিলিং ও ঘুম স্টেশনেই হবে এই প্রদর্শনী। দার্জিলিং স্টেশনের এই উৎসবে স্থানীয় সংস্কৃতি, অ্যাডভেঞ্চার এবং টু্রিজমকে তুলে ধরা হবে। ১৯৯৯ সালের এই দিনটিতে ইউনেস্কোর তরফে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এই উৎসবের লক্ষ্য হল অতিমারীতে পিছিয়ে পড়া পর্যটনকে চাঙ্গা করা।

করোনার কারণে পর্যটন শিল্প অনেকটাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তবে দেড় বছর পর ধীরে ধীরে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ায় ফের পাহাড়ে পর্যটকরা ভিড় জমাচ্ছেন। আর তাঁদের কথা মাথায় রেখেই এই উৎসবের ব্যবস্থা।

0[আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্ক কাটিয়ে উত্তরবঙ্গে পর্যটকদের রেকর্ড ভিড়]

Advertisement
Next