অচৈতন্য চালক, সেই অবস্থাতেই ২৫ কিলোমিটার ছুটল গাড়ি, তবু ঘটেনি দুর্ঘটনা!

09:17 PM Aug 16, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চালক অচৈতন্য, অথচ গাড়ি চলছে, দীর্ঘ সময় ধরে! কাণ্ড দেখে মাথায় হাত পড়ে প্রত্যক্ষদর্শীদের। স্বভাবতই ভয় পান তাঁরা। না জানি কখন দুর্ঘটনা ঘটে! এমারজেন্সি নম্বরে ফোন করে খবর দেন। জরুরি পরিষেবা দলের সদস্যেরা এসে ‘ভূতুড়ে’ গাড়ি থামান। উদ্ধার করেন জ্ঞানহীন চালককে। আশ্চর্যজনক ভাবে ওই যুবকের শরীরে চোট-আঘাতের চিহ্ন মেলেনি। গাড়িটি কোনও রকম দুর্ঘটনায় পড়েনি বলেই জানা গিয়েছে পুলিশ সূত্রে। সম্প্রতি বেলজিয়ামের (Belgium) এই ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

Advertisement

বেলজিয়াম পুলিশ সূত্র জানা গিয়েছে, ঘটনাটি গত ১৪ আগস্ট রাতের। লুভেন শহরের। প্রথমবার রাত ৯টা নাগাদ গাড়িটিকে খেয়াল করেন এক প্রত্যক্ষদর্শী। যেটির চালক অচৈতন্য অবস্থায় রয়েছে। দ্রুত এমার্জেন্সি নম্বরে ফোন করেন প্রত্যক্ষদর্শী। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, অচৈতন্য চালককে নিয়েই গাড়িটি ২৫ কিলোমিটার রাস্তা পাড়ি দেয়।

[আরও পড়ুন: ‘সরকার চালাচ্ছি না, শুধুই ম্যানেজ করছি’, কর্ণাটকের মন্ত্রীর মন্তব্যে আরও চাপে বোম্মাই]

সবচেয়ে বড় কথা, এরপরেও দুর্ঘটনাগ্রস্ত হয়নি গাড়িটি। পুলিশ যখন অচৈতন্য চালককে উদ্ধার করে, তখন তাঁর শরীরে কোনও চোট বা আঘাতের চিহ্নও ছিল না। এমনকী গাড়িটি অন্য কাউকে বা কিছুতে আঘাত করেছে বলেও জানা যায়নি। কীভাবে সম্ভব হল এমনটা?

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ফের দুধের দাম বাড়াল মাদার ডেয়ারি ও আমুল, পকেটে টান আমজনতার]

জানা গিয়েছে, ওই গাড়িতে ছিল লেন অ্যাসিস্ট ও ক্রুজ কন্ট্রোল সিস্টেম। কোনওভাবে যা সক্রিয় হয়ে গিয়েছিল। এর ফলেই অচৈতন্য চালকের গাড়ি প্রয়োজন মতো লেন বদল করে বেশ কয়েকবার। অর্থাৎ কিনা প্রযুক্তি সক্রিয় হওয়ায় আশ্চর্যজনক ভাবে বেঁচে যান যুবক। বেঁচে যান বহু পথচারীরাও। তবে ভাগ্যও সঙ্গ দিয়েছে, নচেত ওইভাবে ২৫ কিলোমিটার পেরোনো সম্ভব ছিল না কখনই।

যুবক অচৈতন্য হয়ে পড়েছিলেন কীভাবে? তিনি কি নেশাগ্রস্ত ছিলেন? এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কিছু জানানো হয়নি বেলজিয়াম পুলিশের তরফে। তবে তিনি নেশাগ্রস্ত ছিলেন কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেই জানা গিয়েছে। তবে একা গাড়ির ২৫ কিলোমিটার পাড়ি দেওয়াই এখন চমকে দেওয়া চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে।  

Advertisement
Next