‘অর্থের অভাব নেই, ৩০ সন্তানের বাবা হও’, ছেলে এলন মাস্ককে পরামর্শ বাবার

08:19 PM Sep 24, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যার টাকা আছে, তার সন্তানের সংখ্যা বেশি হলে ক্ষতি নেই। সন্তানকে দুধেভাতে রাখাই আসল। সংসারি মানুষ মাত্র জানেন এই সার কথা। প্রায় সেকথাই শোনা গেল আমেরিকার (USA) ধনকুবের এলন মাস্কের (Elon Musk) বাবা এরোল মাস্কের (Errol Musk) মুখে। এরোল জানিয়েছেন, তাঁর ছেলের কমপক্ষে ৩০টি সন্তান হওয়া উচিত, ইউরোপের রাজপুরুষেরদের মতো। যেহেতু ছেলের অর্থের অভাব নেই।

Advertisement

টেসলা (Tesla) প্রধান এলন মাস্কের বয়স এখন ৫১। সন্তান সংখ্যা ১০। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে এলনের বাবা এরোল বলেন, অনেক বেশি সন্তান হওয়া উচিত তাঁর ছেলের। এরোল যুক্তি দেন, “আগেকার দিনে ইউরোপের রাজপুরুষরা বহু সন্তানের বাবা হতেন। কমপক্ষে ২০ থেকে ৩০ সন্তান থাকত এক একজনের। এরমধ্যে ৮০ শতাংশ ছিল অবৈধ।” অতএব, এলনেরও কম করে ২০-৩০টি সন্তান নেওয়া উচিত বলে মত দেন এরোল। তিনি আরও জানান, টাকা থাকলে বেশি সন্তান নেওয়াতে সমস্যা নেই।

[আরও পড়ুন: ‘কেন যে প্রথম পুরস্কার জিতলাম!’ ২৫ কোটি টাকার লটারি জিতেও কীসের আফশোস অটোচালকের?]

এলন মাস্কের বাবা এরোলের বয়স ৭৬ বছর। ৭ সন্তানের পিতা তিনি। এই বয়সেও নতুন করে সন্তান চেয়েছেন। এই বিষয়ে গত জুলাই মাসে খোলাখুলি ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন। টুইট করেছিলেন, মানব সভ্যতার সবচেয়ে বড় সংকট হল জন্মহার কমে যাওয়া। তিনি সেই সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছেন বলে জানান। উল্লেখ্য, নিজের সৎ মেয়ের সঙ্গেও দুই সন্তান রয়েছে এরোলের। মাঝে নিজের শুক্রানু দানের বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়েছিলেন বিশ্বের অন্যতম ধনী শিল্পপতির বাবা।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: গীতাপাঠে গিনেস রেকর্ড, একসঙ্গে ১৫০০ পড়ুয়ার মন্ত্রোচ্চারণে মুখরিত আমেরিকার টেক্সাস]

প্রসঙ্গত, ৩৫ বছরের সৎ মেয়ের সঙ্গে যৌন মিলন ও তাঁর সন্তানের বাবা হওয়া নিয়ে মাঝে বাজার গরম করেছিলেন এলন মাস্কের বাবা এরোল মাস্ক! দীর্ঘদিন একথা গোপন রাখলেও গত জুলাইয়ে তা প্রকাশ্যে আসে। যার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় শোরগোল পড়ে যায়। তবে একথা নিজেই জানিয়েছিলেন এরোল মাস্ক। একটি সাক্ষাৎকারে নিজের ‘গোপন’ সন্তানের কথা ফাঁস করেন তিনি। জানান, তাঁর সৎ মেয়ে জানা বেজুইদেনহাউয়ের বয়স ৩৫ বছর। তাঁর সঙ্গে সঙ্গমেই জন্ম নেয় এক পুত্রসন্তান। এই বিষয়ে এরোলের বক্তব্য ছিল, “আমরা তো পৃথিবীতে এসেছি নতুন করে উৎপাদনের জন্যই।” সঙ্গে এও জানান, সন্তান জন্মানোর পর সৎ মেয়ে সঙ্গেই থাকতেন তিনি।

Advertisement
Next